রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।
সংবাদ শিরোনামঃ
প্রধানমন্ত্রীর জনসভা: রাজশাহীতে চলবে বিশেষ ৭ ট্রেন বগুড়ার একটি সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ৪২ বগুড়া-০৭ এর সংসদ সদস্য মোঃ রেজাউল করিম বাবলু রুপসীপল্লী টাওয়ার অল্প টাকায় সাধ্যের মধ্যে মানসম্মত ফ্লাট দিতে সক্ষম প্রধানমন্ত্রীকে বরণে রাজশাহী নগরীজুড়ে বর্ণিল সাজ গভীর রাতে হিরো আলমের জন্য বগুড়ায় ভোট চাইলেন চিত্রনায়িকা মুনমুন পদযাত্রা দিয়ে বিএনপির নতুন আন্দোলন শুরু: ফখরুল বিএনপির পদযাত্রা নয় মরণযাত্রা শুরু হয়ে গেছে: কাদের আফগানিস্তানফেরত ফখরুল হাল ধরেন হুজির, ছিল বড় হামলার পরিকল্পনা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ‘সেকেন্ড টাইম’ ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা দিন যায় বৈঠক হয়, স্থানান্তর হয় না কারওয়ান বাজার

প্রথম ছবিই সুপারহিট, তবুও সিনেমা ছেড়েছিলেন ভাগ্যশ্রী

জিটিবি নিউজ ডেস্ক : বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ভাগ্যশ্রী। ১৯৮৯ সালে সালমান খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে সুরজ বরজাতিয়ার ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। প্রথম ছবি হলেও এই ছবির মাধ্যমে দারুণ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন অভিনেত্রী। ছবিটির বয়স ৩৩ বছর হয়ে গেলেও এখনো ছবিটি সিনেমাপ্রেমীদের হৃদয়ে দুর্দান্ত বিরাজ করছে। এই একটি ছবি দিয়েই অমর হয়ে থাকা যায় তার প্রমাণ ভাগ্যশ্রী। এই ছবির পরে বলিউডে ফেরেননি অভিনেত্রী। কারণ কী? ছোটবেলা থেকে তাঁর বন্ধুত্ব ছিল হিমালয় দাসানির সঙ্গে, পরে সেই বন্ধুত্ব প্রেমে রূপ নেয়। তবে তাঁর রক্ষণশীল বাবা-মা তাঁদের সম্পর্ক মেনে নেননি। পছন্দ ছিল না। হিমালয় পড়াশোনা করতে আমেরিকা চলে যান, পরিবারের চাপে তাঁর সঙ্গে বিচ্ছেদে বাধ্য হন ভাগ্যশ্রী। তখনই তিনি সই করেন ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া। ’ অর্থাৎ প্রেমের বিচ্ছেদের সময় সিনেমার নায়িকা। দুজনে দুই দেশে থাকলেও মানসিকভাবে তাঁদের বিচ্ছেদ কখনো হয়নি হয়তো। তাই ফিল্মে অভিনয় করার আগে ভাগ্যশ্রী হিমালয়ের বাবা-মায়ের অনুমতি নেন। তাঁর মনে হয়েছিল, হিমালয়ের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের ইতি ঘটবে না। হিমালয়ের বাবা-মা ভাগ্যশ্রীকে অভিনয় করার অনুমতি দেন। তারপর শুটিং শুরু করেন ভাগ্যশ্রী। অথচ সেই অনুমতি একটি কৌশল ছিল হয়তো। পড়াশোনা শেষ করে হিমালয় যখন দেশে ফেরেন, তখনো ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’র শুটিং চলছে। কিন্তু তাঁর বাবা-মা তখনো রাজি নন এই সম্পর্ক মেনে নিতে। তখন ভাগ্যশ্রী হিমালয়কে ফোন করে বলেন, তুমি কি এই সম্পর্ক নিয়ে নিশ্চিত? আজই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে… হয় আমি তোমার জীবনে সারা জীবনের জন্য থাকব, নয়তো থাকবই না। ভাগ্যশ্রী বলেন, ‘আমি এখনই বাড়ি ছেড়ে চলে যাচ্ছি, যদি আমাকে ভালোবাসো, এসে নিয়ে যাও। ১৫ মিনিটের মধ্যে তাঁর বাড়ির নিচে এসে দাঁড়ান হিমালয়। তারপর মন্দিরে বিয়ে করেন তাঁরা। তাতে ছিলেন ছবির পরিচালক সুরজ বরজাতিয়া, সালমান খানসহ আরো কয়েকজন। ’ ব্যস, ওই প‌র্যন্তই। এরপর আর ফেরেননি বলিউডে। বিয়ের এক বছর পরেই জন্মায় তাঁদের প্রথম সন্তান অভিমন্যু। পরে মেয়ে অবন্তিকা হয়। এরপরে স্বামী, ছেলে ও মেয়ের ভালোবাসায় মগ্ন ভাগ্যশ্রী আর সিনেমার অফার নিতে পারেননি। যদিও কয়েক বছর আগে সিনেমায় টুকটাক অভিনয় করতে শুরু করেছেন আবার। কিন্তু ৩৩ বছর পূর্বের সেই সিনেমার কথা কি ভুলতে পারেন? বর্তমানে ভাগ্যশ্রী একটি নাচ রিয়ালিটি শোয়ের বিচারকের আসনে রয়েছেন। এ ছাড়া একাধিক দক্ষিণী ছবিতেও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সম্প্রতি ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ ছবির ৩৩ বছর উদযাপন উপলক্ষে অভিনেত্রী তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে স্কুলের বাচ্চাদের নিয়ে ‘দিল দিওয়ানা’ গান গাওয়ার একটি মিষ্টি ভিডিও শেয়ার করলেন। ক্যাপশনে দিলেন, ‘এই খাঁটি ভালোবাসার জন্য কৃতজ্ঞ। ‘

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335