রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

নওগাঁর মহাদেবপুরে সরকারি রাস্তায় দখলকারীদের উচ্ছেদের আবেদন

জিটিবি নিউজঃ মহাদেবপুর সদরের হাইস্কুল মোড় থেকে দশ কলোনী পর্যন্ত সরকারি রাস্তায় অবৈধভাবে স্থায়ী বিল্ডিং নির্মাণ করে দখল করায় এসব উচ্ছেদের আবেদন করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছেন সদর ইউপির ১ নং ওয়ার্ড সদস্য কাজী ফেরদৌস।

তিনি অভিযোগ করেন যে রাস্তার দুইপাশে অবৈধভাবে দখল করার কারণে পানি নিষ্কাশণের জন্য ড্রেন নির্মাণের জায়গা না থাকায় তারা ড্রেন করতে পারছেন না। এ ড্রেন না থাকায় সামান্য বৃষ্টি হলে কলোনীপাড়াসহ আশপাশের এলাকা হাটু পানিতে তলিয়ে যায়। বাড়ি ঘর ও রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে থাকায় এলাকার মানুষের চলাচলে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাই এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে পানি নিষ্কাশনের ড্রেন নির্মাণ করে এ এলাকার মানুষের দুঃখ লাঘবের জোর দাবী জানান।

 

নওগাঁর মহাদেবপুরে তুচ্ছ ঘটনায়
                                                                     অটো চালককে বেদম মারপিট

আইনুল ইসলাম, মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে মাত্র ১৩০ টাকা পাওনাকে কেন্দ্র করে অটো-বাইক আটকিয়ে চালককে বেদম মারপিট করে কাছে থাকা ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে প্রতিপক্ষরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ ঘটনাটি ঘটেছে ২৪ শে জুন বুধবার দিবাগত রাতে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার ভীমপুর ইউনিয়নের লক্ষিপুর-ভান্ডারপুর গ্রামীণ রাস্তায়।

মারপিটে গুরুতর আহত অটো-বাইক চালকের মা শ্রীমতি পূর্নীমা রানী বলেন, আমার ছেলে বিপুল কুমার কবিরাজ (২৮) প্রতিদিনের মতো অটো-বাইক সারাদিন চালিয়ে রাতে বাড়িতে ফেরার পথে বাড়ির পার্শ্ববর্তী এলাকায় পৌঁছালে ওঁত পেতে থাকা দক্ষিণ লক্ষিপুর গ্রামের শ্যামল চন্দ্রের তিন ছেলে পরিমল চন্দ্র (৩৫) অসিম চন্দ্র (২৬) ও মানিক চন্দ্র (২৮) এবং তাদের সহযোগী মদন চন্দ্র (২৮) অটো-বাইক (চার্জার) আটক করে আমার ছেলে বিপুল কুমার কবিরাজকে এলোপাতারীভাবে বেদম মারপিট করেন।

খবর পেয়ে তার মা ও ছোট ভাইসহ কয়েকজন প্রতিবেশী দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বিপুল কুমারকে মারাত্বক জখম ও অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় তারা গুরুতর আহত বিপুল কুমারকে উদ্ধার করে নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে গেলে ডিউটিরত পুলিশের পরামর্শে রাতেই তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

পরে পরে বিপুলের জ্ঞান ফিরলে তিনি জানান, উপরোক্ত ব্যক্তিরা তার কাছে ১৩০ টাকা পাওনা ছিলো। এজন্য তারা বিপুলকে আটকিয়ে প্রথমে তাদেও পাওয়া টাকা চায়, কিন্তু বিপুল বলে যে, আজ রাতে না নিয়ে সকালে টাকা নিও, বিপুল তার অটো-বাইক বিক্রি করেছে এবং বায়নার টাকা নিয়েছে, কাছে টাকা থাকা সত্বেও টাকা না দেয়ায়, সকলে উত্তেজিত হয়ে মারপিট শুরু করেন।

এ সময় তার কাছে অটো বিক্রির বায়নার ২০ হাজার টাকা ও সারাদিন ভাড়া মারার প্রায় ৬শ টাকা ছিনিয়ে নেয়। বিপুলের শ্রীমতি পূর্নীমা রানী কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং বলেন, আমরা খুবই গরীব মানুষ তারা যদি আমার ছেলের কাছে থেকে পাওনা ১৩০ টাকা নিতেই চায় সেই টাকা দিনের বেলা নিতে পারত, আমরা হিন্দু সমাজ রাতে টাকা দেইনা এজন্যই পরেদিন সকালে টাকা দিতে চেয়েছিলো আমার ছেলে অথচ তারা আমার ছেলেকে বেদম মারপিট করে ছেলের কাছে থাকা অটো-বাইক বিক্রি বাবদ ২০ হাজার ও ভাড়ার সব টাকাও নিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বক্তব্য নেওয়ার জন্য যোগাযোগের চেষ্টা করেও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হযনি।

তবে এ ব্যাপারে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, মারপিটের ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় ঐ ছেলেকে রাতে নওহাটামোড় বাজারে নিয়ে আসলে ডিউটিরত পুলিশ চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করার পরামর্শ দিয়েছেন বলে জেনেছি, এখনো এ ব্যাপাওে কোনো অভিযোগ পায়নি, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com