সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন

খরচ বেড়েছে বোরো আবাদে

দিনাজপুরের বিভিন্ন এলাকায় ফসলের মাঠে শুরু হয়েছে ইরি-বোরো ধানের চারা রোপণ। কোথাও বা চলছে রোপণের প্রস্তুতি। তবে অনেক স্থানে শীতে ঠান্ডায় কৃষিশ্রমিক না পাওয়ায় এখনো চারা রোপণ করতে পারেনি কৃষক। বিদ্যুৎ, সার, কীটনাশক, ডিজেলসহ শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার ইরি-বোরো চাষে অতিরিক্ত খরচের শঙ্কায় আছে তারা। এর পরও আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ধানের বাম্পার ফলন ও ভালো দাম পেলে অতিরিক্ত খরচ পুষিয়ে নিতে পারবে আশা তাদের। আশানুরূপ ফলন না পেলে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা। ফসলের মাঠে দেখা যায়, ইরি-বোরোর চারা রোপণে ব্যস্ত কৃষক। বাড়তি হিসেবে বিঘাপ্রতি ৬-৭ ভ্যান গোবর সার ছিটাচ্ছে অনেকে। এরপর গভীর নলকূপের পানি সেচ দিয়ে জমি ভিজিয়ে পাওয়ার টিলার, কেউ ট্রাক্টর দিয়ে চাষ করছে। কৃষক বলছে, বিঘাপ্রতি ২০ কেজি ডেপ, ১২ কেজি পটাশ, ৫ কেজি জিপসাম মিশিয়ে দ্বিতীয়বার চাষ দিয়ে জমি উপযোগী করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে জেলায় ১৫-২০ ভাগ জমিতে চারা রোপণ সম্পন্ন হয়েছে। হাকিমপুরের সাদুরিয়া গ্রামের গভীর নলকূপের মালিক মফিজুল ইসলাম বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমার নলকূপের আওতায় ৬০-৭০ বিঘা জমিতে বোরো ধানের চারা রোপণ করেছে কৃষক। ১ একর জমির জন্য নেওয়া হচ্ছে ৩ হাজার ৬০০ টাকা। গত বছর নেওয়া হয়েছিল ৩ হাজার ২০০। বিদ্যুতের খরচ বেড়েছে, সবকিছুর দাম বেশি, কী আর করা।’

জাংগই গ্রামের কৃষক জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমি ১০ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করি। কয়েকদিনের মধ্যে আমার সব জমিতে চারা রোপণ শেষ হবে। তবে গত বছরের তুলনায় এবার খরচ বেশি।’ খাট্রাউচনা এলাকায় ধান রোপণ করা শ্রমিক শাহাদৎ হোসেন বলেন, ‘আমরা কয়েকজন একটি দল করেছি। দীর্ঘদিন ধরে ইরি-বোরো-আমন ধানের চারা রোপণ করে আসছি। এবার ইরি-বোরোর চারা রোপণে প্রতি বিঘা (৩৩ শতক) ১ হাজার ৩০০ টাকা করে নিচ্ছি। প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ বিঘা জমিতে চারা রোপণ করা যায়।’ হাকিমপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজেনা বেগম বলেন, ‘চলতি মৌসুমে হাকিমপুরে ইরি-বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ হাজার ৫৭৪ হেক্টর জমি। আশা করি লক্ষ্যমাত্রার বেশি জমিতে চাষ হবে। ইতোমধ্যে হাকিমপুরের ১৫-২০ ভাগ জমিতে চারা রোপণ শেষ হয়েছে।’ তিনি আরও জানান, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক হাকিমপুরের প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ইরি-বোরোর বীজ বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে হাইব্রিড জাতের বীজ ২ হাজার ও উফশি জাতের বীজ ২ হাজার জনকে দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রণোদনা হিসেবে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335