মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:০৫ অপরাহ্ন

জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে বিএনপির ১০ দিনের কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক: জিয়াউর রহমানের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ১৭ জনুয়ারি থেকে ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ১০ দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিএনপি।

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) নয়াপল্টনে বিএনপির যৌথসভা শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাদের গৃহীত কর্মসূচির কথা জানান।

তিনি জানান, কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ১৯ জানুয়ারি ভোর ৬টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন, বেলা ১১টায় জিয়াউর রহমানের কবরে ফাতেহা পাঠ ও পুষ্পার্ঘ অর্পণ, বিকেল ৩টায় রমনায় ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে আলোচনা সভা।

জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দৈনিক সংবাদপত্রে ক্রোড়পত্র প্রকাশিত হবে। ঢাকাসহ সারাদেশে জেলা, উপজেলা, মহানগর ও পৌরসভায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

১৭ জানুয়ারি মহিলা দলের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ, ১৮ জানুয়ারি ছাত্রদলের রক্তদান কর্মসূচি, উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার, দুস্থ শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, ছিন্নমূল শিশু-কিশোরদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ, জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের উদ্যোগে এতিম শিশুদের মাঝে পবিত্র কোরআন ও খাদ্য বিতরণ।

১৯ জানুয়ারি রাতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে গরিব ও অসহায়দের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে। ২০ জানুয়ারি জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে।

এছাড়া ২১ জানুয়ারি জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল ও ২২ জানুয়ারি মুক্তিযোদ্ধা দলের আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ এবং ২৩ জানুয়ারি কৃষক দলের উদ্যোগে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। ২৪ জানুয়ারি যুবদল ও ২৬ জানুয়ারি স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার বিদ্যুৎ নিয়ে এত মিথ্যাচার করছে, এদের কথার উত্তর দিতে এখন রুচিতে বাধে।

বিএনপির সাম্প্রতিক কর্মসূচিতে পুলিশের গুলিতে ১৫ জন নিহত হয়েছেন দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, গত ১৫ বছরে ৬ শতাধিক নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে, যার মধ্যে সংসদ সদস্যও রয়েছেন। সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে খুন করা হয়েছে। ৩৫ থেকে ৪০ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। এখনো সহস্রাধিক নেতাকর্মী কারাবন্দি, সম্প্রতি নতুন করে ১৫ হাজার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গায়েবী মামলা হয়েছে।

তিনি বলেন, এই সরকার দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করেছে দুর্নীতির মাধ্যমে, বিচার বিভাগ ধ্বংস করেছে, প্রত্যেকটা জায়গায় দলীয়করণ করেছে। প্রতিদিন আমাদের নেতাকর্মীরদের ওপর অত্যাচার বাড়ছে, নেতাকর্মীরাও আরও দৃঢ়-শক্ত হচ্ছেন। মানুষ জেগে উঠেছেন। ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নে মানুষ রাস্তায় নেমে পড়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমানুল্লাহ আমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সালাফাত আলী সপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335