রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।
সংবাদ শিরোনামঃ
প্রধানমন্ত্রীর জনসভা: রাজশাহীতে চলবে বিশেষ ৭ ট্রেন বগুড়ার একটি সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ৪২ বগুড়া-০৭ এর সংসদ সদস্য মোঃ রেজাউল করিম বাবলু রুপসীপল্লী টাওয়ার অল্প টাকায় সাধ্যের মধ্যে মানসম্মত ফ্লাট দিতে সক্ষম প্রধানমন্ত্রীকে বরণে রাজশাহী নগরীজুড়ে বর্ণিল সাজ গভীর রাতে হিরো আলমের জন্য বগুড়ায় ভোট চাইলেন চিত্রনায়িকা মুনমুন পদযাত্রা দিয়ে বিএনপির নতুন আন্দোলন শুরু: ফখরুল বিএনপির পদযাত্রা নয় মরণযাত্রা শুরু হয়ে গেছে: কাদের আফগানিস্তানফেরত ফখরুল হাল ধরেন হুজির, ছিল বড় হামলার পরিকল্পনা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ‘সেকেন্ড টাইম’ ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে শঙ্কায় শিক্ষার্থীরা দিন যায় বৈঠক হয়, স্থানান্তর হয় না কারওয়ান বাজার

বাণিজ্যমেলায় কোট-ব্লেজারে অফারের ছড়াছড়ি, নেই ক্রেতার চাপ

নিজস্ব প্রতিবেদক: জমে উঠতে শুরু করেছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। মেলা উপলক্ষে ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে পণ্যসামগ্রীতে দেওয়া হচ্ছে নানা অফার। ঠিক তেমনি কােট-ব্লেজারে চলছে ‘রাজকীয়’ অফার। তবে এ অফারের পরও ক্রেতাদের তেমন ভিড় নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় দেশ কালেকশন নামের একটি স্টলে সরেজমিন এ চিত্র দেখা গেছে।

জানা গেছে, বিভিন্ন কোট-ব্লেজারে ১০ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে। সারাদিন স্টলটিতে দর্শনার্থীদের চাপ না থাকলেও সন্ধ্যার দিকে একটু চাপ থাকে। তবে অধিকাংশ ক্রেতা কােট-ব্লেজার দেখলেও ক্রয় করছেন না বলে জানান স্টল মালিক।

সিফাত নামের এক দর্শনার্থী জানান, গতবারের তুলনায় এবারের মেলায় তেমন সুন্দর কোট-ব্লেজার দেখছি না। এখানে এসে কয়েকটি দেখেছি। তবে আজ কিনবো না। কয়েকদিন পর আরও ছাড় দেওয়া হতে পারে। তখন কিনবো।

দেবাশীষ নামের স্টলটির এক কর্মচারী জানান, মেলার প্রথম দিন থেকেই ক্রেতাদের তেমন ভিড় নেই। ফলে এবারের মেলায় এসে আমরা পুরোদমে হতাশ। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কোট-ব্লেজারে ছাড় বৃদ্ধি করছি। তাতেও ক্রেতার তেমন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। আশা আছে আগামী ৮-৯ দিন পর ক্রেতাদের চাপ বাড়তে পারে।

স্টলটির ইনচার্জ আব্দুল বাহার জানান, গতবার এ মেলায় আমাদের আসা হয়নি। এবার কোট-ব্লেজারের বিশাল সংগ্রহ নিয়ে মেলায় হাজির হয়েছি। তবে এখনো আশানুরূপ বিক্রি করতে পারিনি। মেলার চেয়ে বিভিন্ন জেলায় যে শাখা রয়েছে সেখানে আরও বেশি বিক্রি হয় বলে জানান তিনি।

এবারের মেলায় মোট স্টল ও প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৪৮৩টি। এর মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরির প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ১১২টি, মিনি প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ১২৮ ও বিভিন্ন ক্যাটাগরির স্টলের সংখ্যা ২৪৩টি। এর মধ্যে বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৭টি, বিদেশি মিনি প্যাভিলিয়ন ১১টি ও বিদেশি প্রিমিয়ার স্টলের সংখ্যা ১৭টি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335