বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
গাজীপুরে অজ্ঞাতনামা মৃত মহিলার পরিচয় প্রয়োজন আইজিপি ও ডিএমপির কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষন ডিএমপির কদমতলী থানার ওসির বদলি প্রত্যাহার চায় বাসিন্দারা শ্রীপুরে জন্ম প্রতিবন্ধী আতিকুলের স্বপ্ন পূরণ করলো ছাত্রলীগের সভাপতি জাকিরুল হাসান জিকু ডিমলায় পল্লীশ্রী’র চেক হস্তান্তর ও উপকরণ বিতরণ নাজিরপুরে অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন নির্মাণের দরপত্র জমা না নেওয়ার অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে গাবতলীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নিমার্ণের স্থান পরিদর্শন গাবতলীর কাগইলে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা প্রথমে নোটারী পাবলিকে পরে কাজী অফিসে বিয়ে নেত্রকোণার দূর্গাপুরে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদে সাংবাদ সম্মেলন  উখিয়ায় ১ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবাসহ সাদ্দাম নামক চোরাকারবারি আটক: পলাতক ০২

রংপুরে ২ ভাবীর সহযোগীতায় ১ গৃহবধু ধর্ষণ ঃ যুবক গ্রেফতার

মোঃ মমিনুর রহমান, রংপুর ব্যুরোঃ

রংপুরের মিঠাপুকুরে দুই ভাবির সহযোগিতায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে জবেদুল ইসলাম (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে মিঠাপুকুর থানা পুলিশ।

জানা যায়, প্রথমবার ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ঐ গৃহবধুকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

ঘটনাটি মিঠাপুকুর উপজেলার লতিবপুর ইউনিয়নের অভিরামপুর গ্রামে ঘটেছে।

মামলার ও প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে মিঠাপুকুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান জানান, ওই গৃহবধূকে একই গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের পুত্র জবেদুল ইসলাম (২৫) গত ৪ রমজান ইফতারের দাওয়াত দেয়। ইফতারের সময় জুসের সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে ওই গৃহবধূকে অচেতন করার পরে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের সময় দুই ভাবি ঘটনাটি মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে। পরবর্তীতে ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে আবারও ঐ গৃহবধুকে একাধিকবার ধর্ষণ করে জবেদুল।

ওসি আরও জানান, মামলায় বলা হয়েছে, ওই গৃহবধূর স্বামী ঢাকায় থাকেন। বিষয়টি তিনি অনেকদিন গোপন রেখেছিলেন। কয়েকদিন আগে আবারও গৃহবধূকে ভাবি শাপলা বেগমের বাসায় রাত যাপনের প্রস্তাব দেয় জবেদুল। উপায়ন্তর না দেখে পুরো বিষয়টি ঢাকায় থাকা স্বামীকে খুলে বলেন ওই গৃহবধূ। স্বামী ঢাকা থেকে এসে এ বিষয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার দাবি করেন। এরই মধ্যে বিচারের নামে টাকা দিয়ে ঘটনাটি মীমাংসার চেষ্টা চালায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। পরে রোববার রাতে ঘটনার শিকার গৃহবধূ দুলাল বেগম বাদী হয়ে মামলা করেন। এর আগেই আমরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত জবেদুলকে আটক করি।

মামলার পর সোমবার (৩০ আগস্ট) তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অপর আসামী শাপলা বেগম ও রাশেদা বেগমকে গ্রেফতারে অভিযান চলমান আছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. খোরশেদ আলী জানান, ঘটনাটি শোনামাত্রই আমি ভুক্তভোগীকে মামলা করার নির্দেশনা দিয়েছি। এই ঘটনায় যারা মীমাংসার চেষ্টা করেছে এবং অর্থ লেনদেন করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com