সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন

মা জেসমিন আক্তার ও তাঁর দুই মেয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

জিটিবি নিউজঃবইয়ের তাকে থরে থরে সাজানো বই-খাতা। কাঁচা হাতে নাম লেখা- হাসিবা তাসনীম হিমি। দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। প্রতিদিন সন্ধ্যায় মায়ের সঙ্গে পড়তে বসতো শিশুটি। তবে সোমবারের সন্ধ্যাটা ছিল অন্যরকম। বাড়ি ভর্তি মানুষ। হিমি, তার চার বছরের ছোট বোন আদিলা তাসনীম হানি আর মা জেসমিন আক্তারের (৩৫) গলাকাটা লাশ ব্যাগে করে টেনে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

রাজধানীর মিরপুরের বাঙলা কলেজ সংলগ্ন পাইকপাড়ার ‘সি টাইপ সরকারি কোয়ার্টার’-এর ১৩৪ নম্বর ভবনের চার তলার ফ্ল্যাট থেকে জেসমিন আক্তার ও তাঁর দুই মেয়ের গলাকাটা লাশ সোমবার সন্ধ্যায় উদ্ধার করে পুলিশ।

জেসমিন আক্তার ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ক্যাশিয়ার। তাঁর স্বামী হাসিবুল ইসলাম সংসদ সচিবালয়ের সহকারী লেজিসলেটিভ ড্রাফটসম্যান। পাইকপাড়া সি টাইপ কলোনিতে পরিবারটি প্রায় ১০ বছর ধরে বসবাস করছিল।

লাশ উদ্ধারের পর ওই কে বা কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিয়ে ওই কলোনিতে চলছে জল্পনাকল্পনা। ফুটফুটে দুটি শিশু আর তাদের মাকে কেউ এতটা নৃশংসভাবে হত্যা করতে পারে তা ভেবে শিউরে উঠছেন প্রতিবেশীরা। জেসমিন আক্তারের হাতের কবজি ও গলা কাটা অবস্থায় ছিল।

এদিকে পরিবারের লোকজন আর প্রতিবেশীদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে লাশ উদ্ধারের তিন ঘণ্টা পরই পুলিশ জানিয়েছে, দুই সন্তানকে হত্যার পর জেসমিন আক্তার আত্মহত্যা করেছেন বলে তারা ধারণা করছে। স্বজনেরা পুলিশকে বলেছেন, জেসমিন মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। এর আগেও তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। তাঁর চিকিৎসা চলছিল। তবে নিজের শরীরের একাধিক জায়গায় ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যা করা সম্ভব কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335