সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন

নতুন বইয়ে ট্রাম্পকে নিয়ে বিস্ফোরক তথ্য

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ের পর দ্বিধায় বা সংশয়ে পড়ে গিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, অভিষেকের দিনটিও তার ভালো লাগেনি আর হোয়াইট হাউস নিয়ে তার ভীতি ছিল সদ্য প্রকাশিত একটি বইয়ে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সাংবাদিক মাইকেল উলফের লেখা ‘ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি : ইনসাইড দি ট্রাম্প হোয়াইট হাউস’ নামের এই বইতে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট হওয়ার উচ্চাকাক্সক্ষার কথাও তুলে ধরা হয়েছে। এদিকে হোয়াইট হাউসের গণমাধ্যম সচিব সারাহ স্যান্ডার্স বলছেন, বইটি অসত্য আর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত তথ্য দিয়ে ভরা। তবে বইটির লেখক বলছেন, অভিষেকের দিন থেকে শুরু করে ট্রাম্পের প্রশাসন গভীরভাবে দেখার সুযোগ তিনি পেয়েছেন।রুশ সংযোগ : বইটির তথ্য অনুসারে, হোয়াইট হাউসের সাবেক কর্মকর্তা স্টিভ ব্যানন বলেছেন, ২০১৬ সালের জুনে রাশিয়ার কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তার সঙ্গে ট্রাম্প টাওয়ারে একটি বৈঠক করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র। ওই বৈঠকে রাশিয়ানরা ট্রাম্প জুনিয়রকে হিলারি ক্লিনটনের বিষয়ে কিছু নেতিবাচক তথ্য তুলে দেন। এ প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেছেন, ব্যাননের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।

নির্বাচনে জিতে সংশয়ে ট্রাম্প : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ের কিছু পরেই ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র তার একজন বন্ধুকে বলেছেন, তার বাবাকে দেখে মনে হচ্ছিল যেন তিনি ভূত দেখেছেন। মেলানিয়ার চোখে ছিল জল, কিন্তু আনন্দের নয়।অভিষেকে নিরানন্দ ট্রাম্প : অভিষেকের দিনটি উপভোগ করেননি ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রথম সারির বেশিরভাগ তারকা ওই অনুষ্ঠানটি বর্জন করায় তিনি ছিলেন রাগান্বিত, সব কিছু নিয়েই ছিল তার অসন্তোষ।হোয়াইট হাউস নিয়ে ভীত আর উদ্বিগ্ন ট্রাম্প : মাইকেল উলফ লিখেছেন, হোয়াইট হাউস নিয়ে উদ্বিগ্ন আর খানিকটা ভীত হয়ে পড়েছিলেন ট্রাম্প। নিজের জন্য তিনি আলাদা একটি শয়নকক্ষ বেছে নেন।ভবিষ্যৎ প্রেসিডেন্ট ইভাঙ্কা ট্রাম্প? : ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প তার স্বামী জ্যারেড কুশনারের সঙ্গে মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে, ভবিষ্যতে সুযোগ এলে ইভাঙ্কা প্রেসিডেন্ট পদের জন্য নির্বাচনে দাঁড়াবেন।।ট্রাম্পের চুল নিয়ে মশকরা : এই বইয়ের তথ্য অনুযায়ী, ডোনাল্ড ট্রাম্পের চুল নিয়ে মশকরা করতেন ইভাঙ্কা ট্রাম্প।ট্রাম্পকে ‘গাধা’ বলেছিলেন মারডক : সিলিকন ভ্যালির নির্বাহীর সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের একটি বৈঠকের আগে রুপার্ট মারডক টেলিফোনে অনুরোধ করেন যে, এইচ-ওয়ানবি ভিসার ব্যাপারটি বিবেচনা করা হোক। ট্রাম্প দেখা যাবে বলে জবাব দিলে তাকে ‘গাধা’ বলে ফোন কেটে দেন মারডক।ফ্লিন জানতেন রাশিয়া যোগাযোগ কাল হয়ে দাঁড়াবে : যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন নির্বাচনের আগেই বলেছিলেন, কোনো বক্তৃতার জন্য রাশিয়ানদের কাছ থেকে ৪৫ হাজার ডলার গ্রহণ করা ভালো হবে না। বিবিসি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335