শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

বানারীপাড়ায় একের পর এক উন্নয়ন কাজের  উদ্বোধন করছেন শাহে আলম এমপি

মো. সুজন রেমাল্লা,বানারীপাড়া (বরিশাল)প্রতিনিধি: বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলায় একের পর এক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করছেন বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মো. শাহে আলম এমপি। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় বেতাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পূর্ব সলিয়াবাপুর শেরে বাংলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪ তলা ভীত বিশিষ্ট নবনির্মিত দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন করা হয়েছে।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মো. শাহে আলম এমপি এ দু’টি ভবনের উদ্বোধন করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ, ওসি মো. হেলাল উদ্দিন, উপজেলা প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির, ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক মিন্টু, আওয়ামী লীগ নেতা ডা. খোরশেদ আলম সেলিম, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সজল চৌধুরী প্রমুখ। প্রসঙ্গত এলজিইডির এক কোটি ৭৬ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে  ৪ তলা ভীত বিশিষ্ট এ দু’টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে।

পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা এনে দেয় সুস্থ জীবন শাহে আলম এমপি

মো. সুজন রেমাল্লা,বানারীপাড়া (বরিশাল)প্রতিনিধি: জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উপলক্ষে অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) সকাল ১০টায় বানারীপাড়া বন্দর বাজারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অবহিতকরন সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মো. শাহে আলম।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বলেন এখন করোনাকাল এ জন্য পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকবেন এমন বিষয় না। সব সময়ই আমাদের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা থাকতে হবে। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল হুদা, থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হেলাল উদ্দিন, উপ-সহকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী নিজামউদ্দিন, ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক মিন্টু, আ.মন্নান মৃধা ও সাইফুল ইসলাম শান্ত, পৌর আওয়ামী লীগ ও

বন্দর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সুব্রত লাল কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান আশরাফী, আওয়ামী লীগ নেতা শামসুল আলম মল্লিক, ত্রিনাথ পোদ্দার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাকির হোসেন সরদার, প্রেসক্লাব সভাপতি রাহাদ সুমন, সাধারণ সম্পাদক সুজন মোল্লা প্রমুখ। এ সময় ব্যবসায়ীদের মাঝে হ্যান্ড স্যানেটাইজার ও সাবান বিতরণ করা হয়।

বানারীপাড়ায় ৫শ’ দুস্থ পরিবারের মাঝে এমপি শাহে আলম’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মো. সুজন রেমাল্লা,বানারীপাড়া (বরিশাল)প্রতিনিধি: বরিশালের বানারীপাড়ায় করোনাকালীন পৌর শহরের ১ নং ওয়ার্ড ও সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের খেজুর বাড়ি আবাসন এবং বাইশারী ইউনিয়নের দত্তপাড়া গুচ্ছগ্রামে ৫শ’ দুস্থ পরিবারের মাঝে  খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

১৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মো. শাহে আলম এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউএনও শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ, ওসি মো. হেলাল উদ্দিন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. মহসিন-উল-হাসান, ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক মিন্টু, আওয়ামী লীগ নেতা ডা. খোরশেদ আলম সেলিম, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সজল চৌধুরী প্রমুখ।

 

বানারীপাড়ায় নিবেদিত যুবলীগ নেতা মাসুম বিল্লাহ ৩নং ওয়ার্ডের দোয়া প্রার্থী

মো. সুজন রেমাল্লা,বানারীপাড়া (বরিশাল)প্রতিনিধি: ডিসেম্বরে অনুষ্ঠেয় বরিশালের বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে দুঃসময়ের ত্যাগী ও পরীক্ষিত মুজিব অন্তঃপ্রাণ যুবলীগ নেতা মো. মাসুম বিল্লাহ নির্বাচন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করে এলাকাবাসীর দোয়া কামনা করেছেন । মাসুম বিল্লাহ ১৯৯৯ সালে বানারীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশন (পাইলট)’র ছাত্রলীগের সভাপতি ও  ২০১৪ সালে পৌর

যুবলীগের আহবায়ক নির্বাচিত হন। ২০০৬ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়াও মাসুম বিল্লাহ দৈনিক সমকাল’র সুহৃদ সমাবেশের বানারীপাড়া উপজেলা শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক।  তিনি আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে রাতের আঁধারে দলীয়  পোস্টার সাঁটাতে গিয়ে পুলিশ প্রশাসন ও বিএনপি-জামায়াতের ক্যাডারদের হাতে বহুবার লাঞ্চিত হন। একই ক্যাডারদের  হাতে ২০০১ সালের পরে

মারধর ও নির্যাতনের শিকার হন। এসময় তাকে মারধর করে  তমালতলা সংলগ্ন খালে ফেলে দেন।  মাসুম বিল্লাহ সামাজিক বিভিন্ন কাজের সাথে যুক্ত থাকায় নিজ ওয়ার্ডের সর্বশ্রেণী পেশার মানুষের সাথে রয়েছে তার সুগভীর সম্পর্ক। অসাম্প্রদায়িক চেতনার উদারমনা মানুষ হওয়ায় এলাকার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথেও রয়েছে তার গভীর সম্পর্ক। তার প্রার্থী হওয়ার খবরে এমন একজন প্রার্থীকেই বেছে নিতে এলাকার সাধারণ মানুষ এবং যুব সমাজ এক প্রকার ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ৩নং ওয়ার্ডে মাসুম বিল্লাহর মায়ের মামা বাড়ি। ছোট বেলায় মাসুমের পিতা মারা যাবার পরে তার মাতা

এখানেই থাকতেন। মাসুম বিল্লাহর জন্ম এ ৩নং ওয়ার্ডেই। এ ওয়ার্ডেই তার শ্বশুর বাড়িও। এ ওয়ার্ড থেকেই ১৯৯৯ সালে তার আপন চাচা শ্বশুর মরহুম হুমায়ুন কবির সরদার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন। মাসুম বিল্লাহ কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে পারলে তার ওয়ার্ডে সড়কবাতি, পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, রাস্তা প্রশ্বস্তকরণ, মোড়ে মোড়ে ডাস্টবিন  নির্মাণসহ সুখি, সম্মৃদ্ধ, সন্ত্রাস, বাল্য বিয়ে ও মাদকমুক্ত এক আলোকিত ওয়ার্ডে রূপান্তরের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এদিকে মাসুম বিল্লাহ নিজেকে ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে দোয়া চাওয়ায় তার সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এনিয়ে ব্যবপভাবে প্রচারণা চালাচ্ছ্নে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com