বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

শিবগঞ্জে বসত বাড়ীর প্রাচির নির্মাণ কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে গৃহবধু সহ আহত ৬

সাজু মিয়া শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জে বসত বাড়ীর প্রাচির নির্মাণ কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে গৃহবধু সহ উভয় পক্ষের আহত ৬, থানায় অভিযোগ। জানা যায়, পৌর এলাকার তেঘরী গ্রামের আইয়ুব উদ্দিন এর ছেলে মাসুদ, আফছার আলীর ছেলে সরবুল্লাহ, আব্দুল এর ছেলে আঃ রাজ্জাক এর সঙ্গে একই গ্রামের মৃত: মিছির আলীর ছেলে সমসের আলী, জমসেদ আলী ও মতলেব এর সঙ্গে দীর্ঘদিন যাবৎ বসত বাড়ীর ৩২ শতক জায়গা নিয়ে বিবাদ চলে আসছে।

শুক্রবার সকাল ৯টায় মাসুদ গং বসত বাড়ীর সীমানা প্রাচির ইট দ্বারা নির্মাণ করতে গেলে প্রতিপক্ষ সমসের আলী গং বাঁধা প্রদান করে। এসময় উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডতার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় উভয় পক্ষের গৃহবধু সহ ৬ জন আহত হয়। আহতরা হলেন গৃহবধু জোসনা বিবি, মানুজান বেগম, কল্পনা বেগম, মাছুদ প্রাং, স্বপন ও সমসের আলী।

থানা পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ বিষয়ে সমশের আলীর ছেলে ঢাকা ওয়াশা’র বিলিং সহকারী মোঃ জুয়েল মিয়া বলেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তিতে প্রতিপক্ষরা জোরপূর্বক ভাবে প্রাচির নির্মাণ করছে। আমরা বাঁধা দিতে গেলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট সহ ঘরের আসবাবপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায়।

প্রতিপক্ষরা ভূয়া কাগজপত্র তৈরী করে দখল করার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে মাসুদ প্রাং বলেন, বসত বাড়ীর ৩২ শতক জায়গা আমরা দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগ দখল করছি। যাহার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আমাদের নামে রয়েছে। সীমানা প্রাচির নির্মাণ করতে গেলে প্রতিপক্ষরা অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটায়। প্রতিপক্ষদের বাড়িতে কোন লুটপাট বা ভাংচুরের কোন ঘটনা ঘটেনি। তারা ঘোলা পানিতে মাছ শিকাড় করতে চায়। তাদের সম্পর্কে গোটা গ্রামের সাধারণ মানুষ অবগত আছেন। এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

শিবগঞ্জে দূর্বত্ত কর্তৃক মাদ্রাসার মুহতামীম কে মারপিট গাছ কর্তন থানায় অভিযোগ

সাজু মিয়া শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জে দূর্বৃত্ত কর্তৃক মাদ্রাসার মুহতামীম কে মারপিট গাছ কর্তন থানায় অভিযোগ।থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পৌর এলাকার ফায়াসার সার্ভিস এর সামনে মদিনাতুল উলুম ইসলামি মাদ্রাসা ও এতিম খানার মুহতামীকে পৌর এলাকার তেঘরী গ্রামের মৃত: আব্দুল এর ছেলে জহুরুল ইসলাম সহ বেশ কয়েক জন একত্রিত হয় বৃহস্পতিবার মাদ্রাসার মুহতামীম সাইদুর রহমান (৩৮) কে বেধর ভাবে মারপিট করে আহত করে।

হামলাকারীরা ক্ষান্ত না হয়ে বেলা ১টায় সময় দূর্বত্তরা মাদ্রাসায় সামনে ৫টি আম গাছ কেটে নষ্ট করে ফেলে। এ ব্যাপারে মুহতামীম সাইদুর রহমান বলেন, ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স ভবণ নির্মাণ করার সময় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের ম্যানেজার ১৮টি কাঠের দরজা রেখে যায়। ওই দরজাগুলো প্রতিপক্ষ জহুরুল ইসলাম সু-কৌশলে নেওয়ার চেষ্টা করে।

দরজা দিতে রাজি না হওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে মারপিট করে এবং মাদ্রাসার ৫টি গাছ কর্তন করে নষ্ট করে। এব্যাপারে প্রতিপক্ষ জহুরুল ইসলাম এর সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, মারপিটের বিষয়টি মিথ্যা. তবে ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। তিনি বলেন, আমার জামাই সাইফুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের ম্যানেজারের নিকট থেকে ঘরে রং করা বাবদ টাকা পায়, সে জন্য আমি তার কাছে দরজা নিতে গিয়েছিলাম, তার পরে এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। এব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com