শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

নওগাঁয় এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বুলবুল আহমেদ, নওগাঁ: নওগাঁর মহাদেবপুর প্রেসক্লাবের সদস্য এবং দৈনিক স্বাধীন সংবাদ পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি সুইট হোসেনের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে নওগাঁর সর্বস্তরের সাংবাদিকেরা।

রোববার (১৯ জুলাই) দুপুরে নওগাঁ কোর্ট চত্ত্বর প্রাঙ্গনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন নওগাঁ জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক।

ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শহীদ হাসান সিদ্দিকী স্বপন, সাধারণ সম্পাদক আজাদ হোসেন মুরাদ, জেলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদুন নবী বেলাল, ডিবিসি নিউজ টেলিভিশসের প্রতিনিধি এ.কে. সাজুসহ অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার নওহাটা মোড় থেকে গত ৮ই জুলাই বুধবার সন্ধ্যা ৮.৩০ মিনিটের সময় জাতীয় দৈনিক স্বাধীন সংবাদ, দেশের কণ্ঠ ও তরঙ্গ নিউজ ২৪.কম এর সাংবাদিক সুইটকে মহাদেবপুর থানা ও নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ সাংবাদিক সুইট কে চ্যালেঞ্জ করে তোমার কাছে অবৈধ কিছু আছে এরপর তার দেহ তল্লাশি করে কিছু না পেয়ে পাশে থাকা সুইটের মটরসাইকেল তল্লাশি করে সিটের নিচে সামান্ন ফাঁকা স্থান থেকে ৪৪ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে তাকে আটক দেখানো হয়। যা স্থানীয় বাসিন্দা ও আমাদের মনকে প্রশ্নবৃদ্ধ করে।

এ ছাড়া সাংবাদিক সুইট হোসেনের সাথে তার প্রতিবেশি এক দোকানদারের সাথে দীর্ঘদিন শত্রুতা চলে আসছিল এবং নওহাটা ফাঁড়ি পুলিশের এক সদস্যের ফেসবুক হ্যাকের বিষয়ে ওই দোকানদারসহ পুলিশ সদস্য সুইট হোসেনকে দোষারোপ করছিলেন। এ ছাড়া স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির সংবাদ প্রকাশ করার ফলে ওই যুবলীগ নেতা দল থেকে বহিষ্কার হন। আর এই তিন জনের যোগ সাজসেই সুইট হোসেনকে ফাঁসানো হয়েছে বলে সাংবাদিকরা সন্দেহ প্রকাশ করেন। বক্তারা আরও বলেন সুইট হোসনকে জন সম্মুখে আটক করার পরও এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে দৌড়ে পালানোর সময় তাকে ধাওয়া করে আটক করা হয়েছে।

আর তাই এ ঘটনায় সুস্পষ্ট তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর মাধ্যমে তদন্ত দাবী তুলে ধরেন সাংবাদিকরা।

 

নওগাঁর মান্দায় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে এক মৎস চাষীর লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন

বুলবুল আহমেদ, নওগাঁ: নওগাঁর মান্দায় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে এক মৎস চাষীর প্রায় ১ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার গভীর রাতে উপজেলার মান্দা সদর ইউপির বাদলঘাটা গ্রামে মাছ নিধনের এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, বাদলঘাট গ্রামের মৃত বাছের আলীর ছেলে তাছের আলী সরদারের ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি পুকুর লিজ নিয়ে বেশকিছুদিন থেকে মাছ চাষ করে আসছিলেন পাশর্^বর্তী নিয়ামতপুর উপজেলার মালঞ্চি গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিন মিয়া’র ছেলে আয়েজ উদ্দিন মিয়া। এমতাবস্থায় শনিবার (১৮ জুলাই) গভীর রাতে ওই পুকুরে দুর্বৃত্তরা বিষ/ গ্যাসবড়ি প্রয়োগ করে মাছ নিধন করায় আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন মৎসচাষী আয়েজ উদ্দিন মিয়া।

আয়েজ উদ্দিন মিয়া জানান, বাদলঘাট গ্রামের মৃত বাছের আলীর ছেলে তাছের আলী সরদারের ব্যক্তিমালিকানাধীন ৩০ শতক জলাশয়ের একটি পুকুর ৩ বছরের জন্য লিজ নিয়ে মাছ চাষ শুরু করেন । ওই পুকুরে রুই, কাতলা, জাপানি, মৃগেল, সিলভার কার্প, বিগহেড, তিলাপিয়া, বাটাসহ বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করেছিলেন।

তিনি আরো বলেন, রবিবার সকাল ৬টার দিকে ওই পুকুরে গিয়ে দেখেন মরা মাছগুলো পানির ওপরে ভেসে উঠেছে। পুকুর মালিকের সাথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষের লোকজন তার এ ক্ষতিসাধন করেছে বলে দাবি করেন।

এব্যাপারে মান্দা সদর ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তোফা বলেন, বিষয়টি অবগত নয়। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com