শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে প্রিয়া  নামে একজনার মৃত্যু হয়

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃগাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় হাসপাতালে  করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনার  মৃত্যু হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার (৭ জুলাই) দুপুরে মারা যাওয়া  উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ছোট সাতাইল বাতাইল ফুটানি বাজার এলাকার মমিনুল ইসলামের স্ত্রী জেসমিন আক্তার প্রিয়া (১৭)।
তবে পরিবারের অভিযোগ তাকে মেরে ফেলা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ প্রিয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে করেন করেছে।
জানা গেছে, জেসমিন আক্তার প্রিয়া সোমবার দুপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ মঙ্গলবার তাঁর মৃত্যু হয়। প্রিয়ার মৃত্যুর পর তাঁর পিতা-মাতার পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয় তাঁকে নির্যাতন করে হত্যা করেছে স্বামীর পরিবার।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা. রেজাউল করিম জানান, প্রিয়া মঙ্গলবার দুপুরে জ্বর সর্দির মত করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যায়। তিনি আরও জানান, তার শরীরে কোথাও আঘাতে চিহ্ন লক্ষ্য করা যায়নি।
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মজিদুল ইসলাম জানান, প্রিয়ার জ্বর সর্দি সহ করোনা উপসর্গ নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয় এবংএই উপসর্গ নিয়েই সে মৃত্যুবরন করেছে।
গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান জানান, প্রিয়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে এই মর্মে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রত্যয়ন দেওয়া হয়েছে। কিন্তু মারা যাওয়া প্রিয়ার পরিবার মেরে ফেলার অভিযোগ করায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।
উল্লেখ্য, জেসমিন আক্তার প্রিয়ার গত মাসের আনুমানিক ১৬ জুন করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও একবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। পরবর্তিতে করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। আবার গতকাল সোমবার দুপুরে প্রিয়া করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় এবং পরদিন মঙ্গলবার তার মৃত্যু হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com