সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন

প্রতিহিংসার শিকার ২ বিঘা জমির ধান

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি : ধামইরহাটে রাসায়নিক কীটনাশক স্প্রে করে ২ বিঘা জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি  ঘটেছে উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়নের পূর্বতাহেরপুর (নয়াপাড়া) গ্রামে। জমির মালিক ভুক্তভোগী পূর্বতাহেরপুর গ্রামের দুলাল হোসেন ও তার ছেলে সোহেল রানা জানান, জমি-জমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ছিল একই গ্রামের  মতিবুল গংদের সাথে। এর প্রেক্ষিতে গত ১৭ এপ্রিল দিবাগত রাতের আধারে প্রতিহিংসা ও শত্রুতার করে সোহেল রানার ২ বিঘা জমিতে আগাছানাশক (রাসায়নিক কীটনাষক) প্রয়োগ করে।

এতে জমির মালিকের প্রায় ৯০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। ২ দিন পর ধান বিবর্ণ দেখলে স্থানীয় কৃষি অফিস কর্তৃক আগাছানাশক দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন সোহেল রানা। ক্ষতিগ্রস্থদের অভিযোগ প্রতিহিংসা করে মতিবুল ও তার ৩ ছেলে জুয়েল, শাহিন ও মঞ্জুরুল এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে অভিযুক্ত  জুয়েলের সাথে মুঠোফোনে (০১৭৬৮-১৩৯৯৬৯) কথা হলে তিনি ধানে আগাছানাশক স্প্রের বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে গিয়ে বলেন, “আমি অন্যের জমি এগ্রিমেন্ট নিয়েছি, আমি দোষী প্রমাণিত হলে শাস্তি মাথা পেতে নেব।” এ বিষয়ে জমির মালিক দুলাল হোসেনের ছেলে সোহেল রানা বাদী হয়ে ২১ এপ্রিল ধামইরহাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানান।

স্থানীয় প্রতিবেশী আ. কুদ্দুস ও হামিদুল ইসলাম জানান, এটি কোন বিবাদমান জমি নয়, দুলাল হোসেনই জমির প্রকৃত মালিক, মতিবুল গংদের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ শত্রুতা বিরাজমান আছে এবং তাদেরকে সন্দেহ  করা যৌক্তিক।ধামইরহাট থানার ওসি মু. রকিবুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ হাতে পেলে তদন্ত করে ন্যাক্কারজনক এই কাজে জড়িতদের  কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন