রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২২ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
বগুড়ার শেরপুরে বিশালপুর ইউনিয়ন বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কাহালু সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা থানায় তদবিরে গিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী গ্রেফতার মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত: পররাষ্ট্র সচিব আয়রন ব্রিজ তো নয় যেন মরণ ফাঁদ উখিয়ায় বিভিন্ন অপরাধে জড়িত রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৬ শিবগঞ্জে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শাওনের নির্বাচনী উঠান বৈঠক শিবগঞ্জে কৃষকের কলা বাগানের ছড়িতে মেডিসিন ষ্প্রে করে ২শতাধিক কলা নষ্ট করার অভিযোগ শিবগঞ্জ থানা পুলিশের আয়োজনে দূর্গাপূজা উপলক্ষে মত বিনিময় সভা ধামইরহাটে জাহানপুর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি লুইছার রহমান

মৃত্যুদণ্ডেও অনুশোচনা নেই জঙ্গিদের!

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘সমকামী অধিকারকর্মী জুলহাজ মান্নান ও তার বন্ধু মাহবুব তনয় হত্যা মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত ছয় আসামির মধ্যে কারাগারে থাকা চার জন আদালতে হাজির ছিল৷ তবে মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণার পরও তাদের মধ্যে কোনো ধরনের অনুশোচনা ছিলো না’৷

রায়ের পর তাদের মধ্যে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। বরং তারা ছিলেন হাস্যোজ্জ্বল।

এজলাস থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তারা বলেন, আমাদের কোনো অনুশোচনা নেই। সব আল্লাহর সিদ্ধান্ত।

এদিকে রায় ঘোষণার পর আসামিরা কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘টেনশন নাই, আমরা সফল হয়েছি। আল্লাহর পথে আমরা জীবন দিয়ে দেবো। এ রায়ে আমরা সফল হলাম। বিচার ব্যবস্থায় আমাদের আস্থা নেই। তাগুতি আইন আমাদের পায়ের নিচে। আমরা আখিরাতে সফল হবো। ’

রায়ে আট আসামির ছয় জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ঢাকার সন্ত্রাস দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমানের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন-মেজর (বরখাস্ত) সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল জিয়া, আকরাম হোসেন, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, আরাফাত রহমান, শেখ আব্দুল্লাহ ও আসাদুল্লাহ। একইসঙ্গে তাদের ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ড আসামি প্রাপ্তদের মধ্যে মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, আরাফাত রহমান, শেখ আব্দুল্লাহ ও আসাদুল্লাহ কারাগারে আছেন। অন্য দুইজন পলাতক। রায়ে খালাস পাওয়া দুইজন হলেন সাব্বিরুল হক চৌধুরী ও মওলানা জুনায়েদ আহম্মেদ। তারা দুইজনই পলাতক।

২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল রাজধানীর কলাবাগানের লেক সার্কাস রোডের বাড়িতে প্রবেশ করে ইউএসএইড কর্মকর্তা জুলহাজ মান্নান ও তার বন্ধু থিয়েটারকর্মী মাহবুব তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় কলাবাগান থানায় জুলহাজের বড় ভাই মিনহাজ মান্নান ইমন হত্যা মামলা এবং সংশ্লিষ্ট থানার এসআই মোহাম্মদ শামীম অস্ত্র আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com