শেষ পর্যন্ত সরেই দাঁড়ালেন রাহুল গান্ধী

দলীয় প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগ করলেন কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী। গত কিছুদিন তার পদত্যাগ নিয়ে বেশ গুঞ্জনের পর জানা গেল চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। তাকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত পাল্টানোর ব্যাপারে বোঝাতে ব্যর্থ  হয়ে দল এখন নতুন নেতা খুঁজছে। দলীয় এক সূত্র জানিয়েছে, এক সপ্তাহের মধ্যেই নতুন নেতা নির্বাচন করা হবে। রাহুল গান্ধী নিজেই বলেছেন, নতুন নেতা যেন গান্ধী পরিবারের বাইরের কেউ হয়। ফলে তৃতীয়বারের মতো দলটিতে গান্ধী পরিবারের বাইরের কেউ আসতে পারেন। 

বেশ কয়েক দিন ধরেই রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ নিয়ে আলোচনা চলছিলো। গত ২৫ মে কংগ্রেসের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব ছাড়ার কথা বলেন রাহুল গান্ধী। লোকসভায় ৫৪৩ আসনের মধ্যে ৫২ আসন জিতে ভরাডুবির পর তিনি এ সিদ্ধান্ত জানান। এই ব্যর্থতার দায় নিলেও অন্য নেতাকর্মীদেরও সমালোচনা করেছেন রাহুল। তিনি জানান, দলের উচিত গান্ধী পরিবারের বাইরে কাউকে এই দলের দায়িত্ব দেওয়া।

বুধবার তিনি নিশ্চিত করেন যে পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নিবেন না। দল থেকেও জানানো হয়েছে তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়েছে। তবে কে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন তা নিয়ে কিছু জানা যায়নি। ভারতের ঐতিহ্যবাহী এই দলটির নেতৃত্বে বেশিরভাগ সময়ই ছিল নেহরু ও গান্ধীর পরিবারের সদস্যরা। রাহুলকে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করাতে ব্যর্থ হওয়ায় নতুন নেতা খুঁজতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে দলীয় সূত্র।
সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে রাহুল গান্ধী জানান, কংগ্রেসের খুব শিগগিরই নতুন নেতা মনোনীত করা উচিত। তিনি যেহেতু পদত্যাগ করেছেন তাই এই নেতা নির্বাচনের প্রক্রিয়ার সঙ্গে তিনি আর যুক্ত নন। তিনি বলেন, আমি পদত্যাগপত্র জমা দিয়ে দিয়েছি। আমি আর কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট নই। রাহুল গান্ধী বলেন, কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির এখন উচিত একটি বৈঠক ডেকে নেতা নির্বাচন করা। এনডিটিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি এখানে যুক্ত হতে চাই না। সেক্ষেত্রে জটিলতা বাড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD