বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
গাজীপুরে অজ্ঞাতনামা মৃত মহিলার পরিচয় প্রয়োজন আইজিপি ও ডিএমপির কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষন ডিএমপির কদমতলী থানার ওসির বদলি প্রত্যাহার চায় বাসিন্দারা শ্রীপুরে জন্ম প্রতিবন্ধী আতিকুলের স্বপ্ন পূরণ করলো ছাত্রলীগের সভাপতি জাকিরুল হাসান জিকু ডিমলায় পল্লীশ্রী’র চেক হস্তান্তর ও উপকরণ বিতরণ নাজিরপুরে অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন নির্মাণের দরপত্র জমা না নেওয়ার অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে গাবতলীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নিমার্ণের স্থান পরিদর্শন গাবতলীর কাগইলে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা প্রথমে নোটারী পাবলিকে পরে কাজী অফিসে বিয়ে নেত্রকোণার দূর্গাপুরে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদে সাংবাদ সম্মেলন  উখিয়ায় ১ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবাসহ সাদ্দাম নামক চোরাকারবারি আটক: পলাতক ০২

কলাপাড়া সংলগ্ন দক্ষিন উপকূলীয় বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে ঝাকে ঝাকে রুপালী ইলিশ ধরা পড়লো

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি ঃ কলাপাড়া সংলগ্ন দক্ষিন উপকূলীয় বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে ঝাকে ঝাকে রুপালী ইলিশ ধরা পড়লো। মৎসবন্দর মহিপুর-আলীপুর ও কুয়াকাটার মৎস্য আড়ৎগুলোতে কর্মব্যস্ততা বেড়েছে। কলাপাড়ায় সবগুলো আড়তে দিনে কয়েক হাজার মেট্টিক টন মাছ কেনা-বেচা হচ্ছে, দামও আছে হাতের নাগালে। ইলিশ ধরা পড়ায় জেলেদের মুখে হাসি ফুটেছে। সাধারন মানুষও কম দামে ইলিশের স্বাদ গ্রহন করে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছে।

ববিবার সারাদিন সরেজমিনে মৎস্যবন্দর মহিপুরে ঘুরে দেখা গেছে, হাবিল মাঝি তিনশো মন মাছ ধরেছে। তিনি আলিপুর ফিস আড়তে ওই মাছ ৪৫লাখ টাকায় বিক্রি করেছে। ফেনী থেকে কুয়াকাটায় সাগরে ইলিশ ধরতে এসেছেন লাবলু মাঝি। বিসমিল্লাহ ট্রলারে সে ১০০ মন মাছ পেয়েছেন। সাগর মৎস্য আড়দে সে ওই মাছ ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করে। এফবি আলিফ ট্রলারের রহিম মাঝি মাছ পেয়েছেন ১২০ মন, মৎস্য বন্দর মহিপুরের ভাই ভাই মৎস্য আড়তে সে ওই মাছ ২২ লাখ টাকায় বিক্রি করেছেন। রহিম মাঝি চট্রগ্রাম থেকে কুয়াকাটায় সাগরে ইলিশ ধরতে এসেছেন। এভাবে প্রত্যেক ট্রলারে ইলিশ ধরা পড়ায় খুশি জেলেরা ও সংশ্লিষ্ট ব্যাসায়ী।

মহিপুর বন্দরের মেসার্স আল্লাহ ভরসা মৎস্য আড়দের মালিক লুনা আকন এ প্রতিনিধিকে জানায়, বাজারে এক কেজির নিচে এবং ৮শ গ্রামের উপরের সাইজের মাছের দর ২৩ হাজার ৫শত টাকা মন, ৫শ গ্রামের উপরের মাছ ১৭ হাজার টাকা এবং ৫শ গ্রামের নিচের মাছ ১৪ হাজার টাকা মন দরে বিক্রি হয়।

আলীপুর-কুয়াকাটা মৎস্য আড়ৎ সমবায় সমিতির সভাপতি আনছার উদ্দিন মোল্লা সাংবাদিকদের জানায়, ৪/৫দিন ধরে ৫০ ভাগ জেলেদের জালে ভালো ইলিশ ধরা পড়ছে। এরকম ১৫ দিন মাছ ধরা পড়লে জেলেরা বিগত দিনের করোনাকালীন ক্ষতি পুষিয়ে লাভের মুখ দেখবে বলে তিনি আশা করেন।

মহিপুর মৎস্য আড়ৎ সমবায় সমিতির সভাপতি দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম বেপারী গনমাধ্যমকে বলেন, এ সপ্তাহে বঙ্গোপসাগরে ইলিশ ধরা পড়ছে, দামও আগের তুলনায় কম। মহামারি করোনা ও দীর্ঘ অবরোধের পর জেলেদের জালে মাছ ধরা পড়ায় সবাই বেজায় খুশী।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com