বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
গাজীপুরে অজ্ঞাতনামা মৃত মহিলার পরিচয় প্রয়োজন আইজিপি ও ডিএমপির কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষন ডিএমপির কদমতলী থানার ওসির বদলি প্রত্যাহার চায় বাসিন্দারা শ্রীপুরে জন্ম প্রতিবন্ধী আতিকুলের স্বপ্ন পূরণ করলো ছাত্রলীগের সভাপতি জাকিরুল হাসান জিকু ডিমলায় পল্লীশ্রী’র চেক হস্তান্তর ও উপকরণ বিতরণ নাজিরপুরে অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন নির্মাণের দরপত্র জমা না নেওয়ার অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে গাবতলীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নিমার্ণের স্থান পরিদর্শন গাবতলীর কাগইলে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা প্রথমে নোটারী পাবলিকে পরে কাজী অফিসে বিয়ে নেত্রকোণার দূর্গাপুরে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদে সাংবাদ সম্মেলন  উখিয়ায় ১ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবাসহ সাদ্দাম নামক চোরাকারবারি আটক: পলাতক ০২

বগুড়ায় আলুর হিমাগার নিয়ে বিপাকে মালিকরা, বাঁচাতে আবেদন 

এম,এ রাশেদ,বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়ার আলুর হিমাগার শিল্প ধ্বংসের পথে দাবি করে তা বাঁচাতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে। রোববার দুপুরে বৃহত্তর বগুড়া জেলা (বগুড়া-জয়পুরহাট) কোল্ড স্টোরেজ ওনার্স এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে এই স্মারকলিপি দেয়া হয়।
সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে,  বৃহত্তর বগুড়া জেলাধীন ৫৫টি কোল্ড স্টোরেজ রয়েছে। এসব হিমাগারের মালিকরা বিভিন্ন প্রতিকূলতার মধ্য আলু সংকট জনিত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তারা আলু সংরক্ষণ করার জন্য ব্যাংক থেকে কোটি কোটি টাকা ঋণ নিয়ে ব্যবসায় করে আসছেন। একই সঙ্গে হিমাগারে আলু রাখা ব্যবসায়ী ও কৃষকরা বিভিন্ন এনজিও থেকে ক্ষুদ্র ঋণ নিয়ে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। বর্তমানে আলুর দাম নিম্নমুখী হওয়ায় হিমাগার মালিক, আলু চাষি ও ব্যবসায়ীরা চরম হতাশায় দিন যাপন করছেন। এমন পরিস্থিতিতে হিমাগার শিল্প বাঁচাতে ব্যবসায়ী ও কৃষি পণ্য আলু চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করার জন্য সরকারি পদক্ষেপ নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে। সরকারি ত্রাণ কাজে, ভিজিএফের মাধ্যমে আলু বিতরণসহ ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে প্রতি জেলায় আলু বিক্রয় করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। এতে হিমাগার শিল্প ও কৃষিপণ্য হিসাবে আলু চাষি ও ব্যবসায়ীরা আশার মুখ দেখবেন।
স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়েছে, গত বছর আলুর দাম একটু বৃদ্ধি থাকার কারণে জেলা প্রশাসক জোর করে হিমাগার থেকে আলু বিক্রি করতে বাধ্য করেছিলেন। এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা জরিমানা করেন। এবার সরকারি সহযোগীতায় আলু বিক্রয় করা না হলে হিমাগার সংরক্ষণ থাকা অর্ধেক আলু অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে থাকবে অথবা ফেলে দিতে হবে।
হিমাগার শিল্প বাঁচাতে ও একই সঙ্গে আলু চাষে কৃষকদের উৎসাহিত রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন করা হয়েছে এই স্মারকলিপির মাধ্যমে।
জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্মারকলিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের জেলা কমিটির সভাপতি ডা. হোসনে আরা বেগম, সিনিয়র সহসভাপতি আবুল কালাম আজাদ, তোফাজ্জল হোসেন, শহিদুল ইসলাম শাহিদ, মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফুর, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, দপ্তর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বাদল, কোষাধ্যক্ষ প্রদীপ কুমার প্রসাদ, ধর্মীয় সম্পাদক ওয়াহেদুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা নিলুফার মাহরুখ হোসেন, সহ কোষাধ্যক্ষ মাহাদত হোসেন, সদস্য শরিফ আহমেদ, মেহেদি হাসান, শফিকুল ইসলামসহ আরো অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com