বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৪:২৫ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

ধামইরহাটে প্রতিষ্ঠার ৫ যুগ পরে মাদরাসা ও দেড় যুগ পর কলেজ পেল নতুন ভবন

আবু মুছা স্বপন ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলায় প্রতিষ্ঠার ৫ যুগ পরে একটি মাদরাসা ও দেড় যুগ পর একটি কলেজে নতুন একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ১৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬ টায় ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া আগ্রাদ্বিগুন মহাবিদ্যালয়ে ৮৫ লাখ টাকা বরাদ্দে ৪ তলা ভিত বিশিষ্ট ১ তলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. শহীদুজ্জামান সরকার, এম.পি।

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪ টায় খেলনা ইউনিয়নের লোদিপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসায় একই বরাদ্দে ৪ তলা ভিত বিশিষ্ট ১ তলা একাডেমিক ভবনেরও উদ্বোধন করেন তিনি। লোদিপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসাটি ১৯৬২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। উদ্বোধন শেষে উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা তমিজ উদ্দিন ও বিশিষ্ট সমাজসেবক আব্দুল লতীফ মিরের সভাপতিত্বে পৃথক দুটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আগ্রাদ্বিগুন ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেকস সভাপতি আবু সুফিয়ান খানের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাংসদ শহীদুজ্জামান সরকার। এ সময়, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজাহার আলী, ইউএনও গনপতি রায়, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান দেলদার হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, জেলা পরিষদ সদস্য নুরুজ্জামান, অধ্যক্ষ মোজাফফর রহমান, অফিসার ইনচার্জ আবদুল মমিন, ইউপি চেয়ারম্যান

আব্দুস সালাম, সালেহ উদ্দিন আহমেদ, ইউনিয়ন আ’লীগ সম্পাদক আজিজুল হক সরকার বকুল, সুপার আইনুল হক, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা আকতার হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবু সুফিয়ান হোসাইন, সম্পাদক আহসান হাবীব পান্নু, উপজেলা প্রেস ক্লাব সম্পাদক মেহেদী হাসান, সাংবাদিক আব্দুল্লাহেল বাকী, জাহিদ হাসান, সাজু খন্দকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ধামইরহাটে নদীতে গোসল দিয়ে আর ফেরা হলো না কিশোর রিয়াদের

আবু মুছা স্বপন ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাট আত্নীয় বাড়ী বেড়াতে এসে আর বাড়ী ফেলা হলো না কিশোর রিয়াদ হোসেনের। গোসল করতে গিয়ে নদীগর্ভে তলিয়ে যান ওই কিশোর। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ইউপি সদস্য আব্দুল কাদের জানান, ১৫ সেপ্টেম্বর বিকেলে আড়ানগর ইউনিয়নের নাম্বা সিঙ্গারুল গ্রামের মোশারফ হোসেনের জমজ দুই ছেলে রিয়াদ ও জিহাদ আলমপুর ইউনিয়নের শিমুলতলী নদী সংলগ্ন চৌঘাট এলাকার জগন্নাথপুর গ্রামের আমজাদের বাড়ীতে বেড়াতে আসে।

পরদিন ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২ টার দিকে নদীতে গোসল করতে যায় কয়েকজন শিশু, রিয়াদ-জিহাদও নদীতে গোসল করতে যায়। কিন্তু আমজাদের ছেলে ও নিখোজ রিয়াদের ছোট ভাই জিহাদ ভাই রিয়াদ না পেয়ে দিক বিদিক খোজাখুজি করেন।

মুহুর্তের মধ্যেই ঘটনা জানাজানি হলে পত্নীতলা ফায়ার সার্ভিস বিকেলে অভিযান শুরু করে। তাতে কোন সন্ধান না পেয়ে সন্ধ্যায় রাজশাহী থেকে ডুবুরি লিডার নুরুন্নবীর নেতৃত্বে ৪-৫ জন ডুবুরি নদীতে রাত ৯ টা পর্যন্ত অনুসন্ধান চালিয়ে নিখোজ রিয়াদের কোন সন্ধান পাওয়া যায় নি।
ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন এবং ১৭ সেপ্টেম্বর দিনভর নদীতে খোজাখুজি চলছিল বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com