বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১০ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

বগুড়ায় ৯ পৌরসভায় দলীয় মনোনয়ন পেতে মাঠে অর্ধশতাধিক প্রার্থী

নুরনবী রহমান বগুড়া প্রতিনিধি: চলতি বছরের শেষে পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে বগুড়ার ৯ পৌরসভায় নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর এ কারনেই বিভিন্ন পৌরসভায় প্রধান দুই দলের প্রার্থীরা নানাভাবে তাদের প্রার্থীতা জানান দিচ্ছেন।২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর এই ৯ পৌরসভায় নির্বাচন হয়। নির্বাচন কমিশন দেশের ২৩৪টি পৌরসভায় একইদিনে ভোটের চিন্তা করছে।

এর মধ্যে বগুড়া সদর, শেরপুর, সারিয়াকান্দি, গাবতলী, সান্তাহার, কাহালু, ধুনট, নন্দীগ্রাম, শিবগঞ্জ পৌরসভা রয়েছে। ডিসেম্বর মাসে নির্বাচন কেন্দ্র করে নড়েচড়ে বসেছে প্রার্থীরা। তবে অন্যান্য দলের চাইতে ক্ষমতাসীন দলের নৌকা পেতে অনেকেই মাঠে নেমেছে। বিএনপির প্রার্থীরা চেয়ে আছে কেন্দ্রের দিকে।

সরেজমিনে জানা গেছে, বগুড়া পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগ থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন সাবেক পৌর চেয়ারম্যান, জেলা আ’লীগের সাবেক সহ-সভাপতি এড. রেজাউল করিম মন্টু, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স সভাপতি, এফবিসিসিআই এর পরিচালক মাসুদুর রহমান মিলন, বগুড়া আদালতের পিপি ও জেলা আ’লীগের সাবেক সহ-সভাপতি এড. আব্দুল মতিন, পৌরসভার প্যানেল মেয়র জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন শেখ হেলাল, জেলা যুবলীগ সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন।

বিএনপি থেকে বর্তমান মেয়র এড. একেএম মাহবুবর রহমান, ৪ বার নির্বাচিত কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ার, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এম আর ইসলাম স্বাধীন ধানের শীষের মনোনয়ন প্রত্যাশী।শিবগঞ্জ পৌরসভায় বর্তমান মেয়র বিগত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তৌহিদুর রহমান মানিক, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জি: আব্দুল মান্নান নৌকার মনোনয়ন পেতে চান। বিএনপি থেকে সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান মতিন একক প্রার্থী হিসেবে মাঠে নেমেছেন।

গত পহেলা সেপ্টেম্বর দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ মীর শাহে আলম জেলা নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তাকে একক প্রার্থী হিসেবে মাঠে করার ঘোষনা দিয়েছেন।নন্দীগ্রাম পৌরসভায় বর্তমান মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল, বিএনপি থেকে সুশান্ত কুমার শান্ত, আলীগ থেকে বর্তমান প্যানেল মেয়র আনিসুর রহমান, যুবলীগনেতা মাহমুদ আশরাফ মামুন, স্বেচ্ছাসেবকলীগের কামরুল হাসান সবুজ, ফজলুল হক কাশেম মাঠে নেমেছেন।

শেরপুর পৌরসভায় আ’লীগ থেকে বর্তমান মেয়র ও উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব আম্বিয়া, যুগ্ম সম্পাদক সারোয়ার রহমান মিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম পোদ্দার ববি, যুবলীগ নেতা তারিকুল ইসলাম তারেক, মোস্তাফিজার রহমান ভুট্টো, বিএনপি থেকে সাবেক মেয়র জানে আলম খোকা, সাবেক মেয়র স্বাধীন কুমার কুন্ডু।

ধুনট পৌরসভায় বর্তমান মেয়র এজিএম বাদশাহ, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ টিআই নুরুন্নবী তারিক, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রেজা, বিএনপি থেকে সাবেক মেয়র আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল, সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী বর্তমান মেয়র তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু, সাবেক মেয়র ফিরোজ মো: কামরুল হাসান, নির্মান শ্রমিকদল নেতা লায়ন ফরিদ আহমেদ, আওয়ামীলীগ থেকে শ্রমিকলীগ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাজা, প্যানেল মেয়র জার্জিস আলম রতন, সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মন্টু, জেলা পরিষদ সদস্য জাহেদুল বারী, জাপা থেকে আব্দুল লতিফ, গাবতলীতে বিএনপি থেকে বর্তমান মেয়র সাইফুল ইসলাম, আ.লীগ থেকে সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোমিনুল হক শিলু, আ’লীগ নেতা আজিজার রহমান।

কাহালু পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে পর পর ২য় বার নির্বাচিত মেয়র ও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব হেলাল উদ্দীন কবিরাজ প্রার্থী হবেন। বিএনপির থেকে সাবেক মেয়র ফরিদুর রহমান ফরিদ, আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান (ভাটা মান্নান) ও আব্দুল মান্নান এর নাম শোনা যাচ্ছে।

সারিয়াকান্দি পৌরসভায় বর্তমান মেয়র ও বিগত নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থী আলমগীর শাহী সুমন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম রাজু, আ’লীগ নেতা মতিউর রহমান মতি, মফিজুল ইসলাম পটল, বিগত নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুর রশিদ ফারাজী নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। বিএনপির ধানের শীষ পেতে মাঠে নেমেছেন সাবেক মেয়র টিপু সুলতানের সহধর্মীনি সাবিনা ইয়াছমিন বেবী।

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু জানান, পৌর নির্বাচন বিষয়ে কেন্দ্র থেকে যেভাবে নির্দেশনা প্রদান করবে সেই অনুযায়ী আমরা কাজ করবো। এখনো কোন নির্দেশনা আসেনি, অনেকেই দলীয় প্রার্থী হতে বিভিন্নভাবে কাজ করছে।

বগুড়া জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এড. সাইফুল ইসলাম জানান, পৌর নির্বাচন নিয়ে এখনো কোন সিদ্বান্ত হয়নি।

বগুড়া চেম্বার অব কমার্স সভাপতি, এফবিসিসিআই এর পরিচালক জেলা আ’লীগ নেতা মাসুদুর রহমান মিলন প্রার্থীতা প্রসঙ্গে জানান, দলীয় নেত্রী সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা যদি মনোনয়ন দেন, তবে নির্বাচন করবো। এছাড়া যাকেই মনোনয়ন প্রদান করবেন তার পক্ষেই কাজ করবো ইনশাল্লাহ।

বিএনপির কেন্দ্রিয় সদস্য ও সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আলী আজগর তালুকদার হেনা জানান, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান যাকেই মনোনয়ন দিবেন, তাকে বিজয়ী করতে আমরা কাজ করবো।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্ জানান, যথাসময়ে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন সিদ্বান্ত প্রদান করলে আমরা তা বাস্তবায়নে কাজ করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com