শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১৪ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

বানারীপাড়ায় নিজ মোটর সাইকেল বিক্রি করে সাধারণ মানুষের পাশে প্যানেল মেয়র আকবর

জিটিবি নিউজঃ করোনাকালের ভীতিতে দিনরাত কাটছে মানুষের। কি ধনী কি গরীব সবার মাঝেই অজানা এক আতঙ্ক কাজ করছে। না জানি কি হয়। তার মধ্যে টাকাওয়ালারা যতনা বাহিরে বের হন তার চেয়ে দৈনিক উপার্জনের লোকেরা বাহিরে বের হন বেশি। কেননা তাদের একদিন উপার্জন না হলে পরেরদিন না খেয়ে থাকতে হবে।

এমন এক অবস্থায় পড়েছেন বরিশালের বানারীপাড়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের ভাড়াটিয়া একটি পরিবার। ওই পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম মো. লতিফ হোসেন পেশায় রিক্সা চালক। তিনি পরিবার নিয়ে যে বাড়িতে ভাড়া থাকেন সেই বাড়িওয়ালার স্ত্রী রানী বেগমের কোভিড-১৯ পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে গত ২৪ জুন (বুধবার)। এরপর থেকে বাড়িটি লকডাউন করেছেন পৌর কর্তপক্ষ।

বাড়িওয়ালা মো. আবুল মোকসেদ ঢালীর খাবারের কোন সমস্যা না হলেও বিপাকে পড়েছেন ভাড়াটিয়া মো. লতিফ হোসেন। লকডাউনের কারণে ওই বাড়ি থেকে তিনি বের হচ্ছেন না। ফলে খাবারের সংকটে পড়েন তার পরিবার। এ খবর শুনেই পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র মো. আকবর সরদার শুক্রবার ২৬ জুন রাত ১০ টার সময় চাল.ডাল,তেল,লবন,পেঁয়াজ,আলুসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ে ওই বাড়িতে হাজির হন।

এ সময় তার সাথে ছিলেন,স্থানীয় ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো.আহসান কবির নান্না হাওলাদার,বানারীপাড়া প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কেএম শফিকুল আলম জুযেল,মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. সুজন মোল্লা। প্যানেল মেয়র আকবর সরদার জানান,ওই বাড়িতে খাবার নেই শুনেই তিনি খাবারের ব্যবস্থা করেছেন।

বাড়িওয়ালার কাছেও জিজ্ঞেস করা হয়েছে তার খাবার সংকট হলে তারও ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও ওই রিক্সা চালক মো. লতিফ হোসেনকে বলা হয়েছে খাবার শেষ হলেই তিনি যেন তার মুফোফোনে জানান। অপরদিকে করোনাকালের শুরু থেকে প্যানেল মেয়র মো. আকবর সরদার তার ব্যবহৃত পালসার মোটরসাইকেল বিক্রি করে নিজ ওয়ার্ডের অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার দিয়ে এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তবে তার দেয়া খাদ্য সামগ্রী তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার বলে সাধারণ মানুষের কাছে পৌছে দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com