মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৭:২৫ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।
সংবাদ শিরোনামঃ
ডেমরায় নিরীহ পরিবারের সম্পত্তি গ্রাস করতে ভুমিদস্যুদের অপকৌশল গাবতলী, সোন্দাবাড়ী দারুল হাদিস রহমানিয়া হাফেজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানা পরিদর্শন কালে মাদরাসার কৃতপক্ষ ফুলের শুভেচ্ছা জানান (৪২)বগুড়া -৭ আসনের এমপি জনাব মোঃ রেজাউল করিম বাবলু মোহদয় কে।সেই সাথে সোন্দাবাড়ী দারুল হাদিস রহমানিয়া হাফেজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানা জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেন ? নামীদামী ব্রান্ডের সাথে পাল্লা দিয়ে নুরানী চিলি সস ও টমেটো কেচাপ এখন ভোক্তাদের প্রথম পছন্দের তালিকায় উঠে এসেছে যাত্রাবাড়িতে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ও যানজট নিরসনে কাজ করছেন ট্রাফিক পুলিশের টিআই মৃদুল পাল ও মেনন শিবগঞ্জে আশুরা উপলক্ষে শোক মজলিস ও র‍্যালী বাল্যবিয়ের হাত থেকে রেহাই পেল কিশোরী

এম পি পাপুল ঘুষ বা উপহার প্রদানে উদার ছিলেন

 জিটিবি নিউজডেস্কঃ   মানব পাচারের দায়ে আটক বাংলাদেশি এমপি কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের স্বীকারোক্তি মতে, তার কুয়েতি সহযোগিরা গোয়েন্দা জালে ধরা পড়ছে। এ পর্যন্ত স্বরাষ্ট্রের বড় দুই কর্তাকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আদালত তাদের জামিন নামুনজুর  করে কারাগারে পাঠিয়েছে।

গতকাল এক নারীসহ পাপুলের ৪ সহযোগীর জেরা সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে কর্নেল পদ মর্যাদার একজন কর্মকর্তাও আছেন। প্রতিষ্ঠিত ইংরেজি দৈনিক আরব টাইমসের রিপোর্ট মতে, কাকে কীভাবে ম্যানেজ করতে হবে সেই বুদ্ধি-পরামর্শ দিতেন ওই সহযোগিরা। এ জন্য তারাও নিয়মিত মোটা অংকের ফি নিতেন। তবে পাপুলকাণ্ড জনসম্মুখে প্রথম প্রকাশকারী আররি দৈনিক আল-কাবাসে সর্বশেষ রিপোর্টে তদন্ত সংস্থার ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে বলা হয়েছে, পাপুলের স্বীকারোক্তির সূত্র ধরে তার অপকর্মের সঙ্গী নারী একজন ব্যবসায়ীদু’দিন আগে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে সিআইডি। ওই নারীসহ পাপুল কানেকশনের বিস্তৃত তদন্ত চলমান রয়েছে জানিয়ে রিপোর্টে বলা হয়, পাপুল ইস্যুতে দেশি-বিদেশি নতুন নতুন নামযুক্ত হচ্ছে এবং তা চাঞ্চল্য তৈরি করছে। বিশেষতঃ ‘বাঙ্গালি এমপি’র কেসটি কুয়েতের রাজনীতি ও প্রশাসনে বাড়তি উত্তাপ তৈরি করেছে। দিনে দিনে এটি যেনো কেবলই ডালপালা মেলছে।

১৪ই জুন পাপুলের রিমান্ডের শেষ দিনে রাঘব-বোয়ালদের নাম বলে গেছেন তিনি। আর এ কারণে সিআইডির কাজ সহজ হয়ে গেছে। পাপুল কাকে কত অনৈতিক সুবিধা দিয়েছেন এবং নিয়েছেন তা রিমান্ডে নিজের মুখেই বলে গেছেন। তাছাড়া ঘুষের পরিমাণ ও ডকুমেন্ট আগেই হাতে পেয়েছিল কুয়েত-সিআইডি।

আরব টাইমস বলছে, পাপুল ঘুষ বা উপহার প্রদানে উদার ছিলেন। তিনি দুহাতে অর্থ বিলিয়েছেন। অবশ্য রিটার্ন বা বিনিময়ও পেয়েছেন। কুয়েতের স্বরাষ্ট্র ও জনশক্তি বিভাগের অসাধু, ঘুষগ্রহণকারী জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের মোটা অংকের মাসোহারা-ঘুষ দেয়ার পরও জালজাতি আর ভিসা বাণিজ্যে বছরে পাপুলের নেট প্রফিট ছিল ২ মিলিয়ন কুয়েতি দিনার।

কুয়েত ও মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমগুলোর রিপোর্টে মতে, এমপি পাপুলের অনৈতিক ও বাণিজ্য এ পর্যন্ত কুয়েতের সাবেক ও বর্তমান ৩ এমপি, স্বরাষ্ট্র ও জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের ৭ শীর্ষ কর্তাসহ সরাসরি তার সহযোগী হিসাবে মোট ২১ জনকে চিহ্নিত করেছে কুয়েত-সিআইডি। তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com