রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

মহাস্থানে ১০ হাজার মানুষের বসত ভিটা রক্ষার্থে সংবাদ সম্মেলন

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মহাস্থানে ১০ হাজার মানুষের বসত ভিটা রক্ষার্থে এবং মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। মহাস্থান গড় রক্ষা কমিটির আয়োজনে রবিবার সকালে গড় মহাস্থান গ্রামে গড় রক্ষা কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহিনুর রহমান এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গড় মহাস্থান গ্রামের দেড় হাজার পরিবারের প্রায় ১০ হাজার মানুষ দীর্ঘদিন যাবৎ শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করে আসছে। আমরা বংশক্রম অনুসারে এবং পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত ব্যক্তি মালিকাধীন ৫৮৬.১১ একর জমি শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোগ দখল এবং আমাদের পূর্ব পুরুষরা জমিগুলো চাষাবাদের মাধ্যমে জীবন জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। আমাদের গড় মহাস্থান মাদ্রাসা, প্রতœতাত্তি¡ক জাদুঘর, ডাকবাংলা সহ বিভিন্ন সামাজিক ও আর্থিক সহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। কিন্তু গত কয়েক বছর পূর্বে গড় মহাস্থান এলাকার কেউ বসতবাড়ি নির্মাণ, কিংবা মৃত দেহ কবরস্ত, খননের জন্য কবর খনন, পানি সেচের জন্য ড্রেন নির্মাণ প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ কিংবা খনন করতে প্রতিনিয়ত বাঁধা গ্রস্থ হচ্ছে। ইতিপূর্বে হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশ নামক সংগঠনটি ২০১০ সালে মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন মামলা করলে মহামান্য হাইকোর্ট মামলাটি পর্যবেক্ষন করে নিষ্পত্তি করেন। রায়ে উল্লেখ রয়েছে, কেবল মাত্র প্রতœতাত্তি¡ক নির্দশনীয় স্থানে খনন কাজ বন্ধ করা। কিন্তু প্রতœতাত্তি¡ক জাদুঘর এর কিছু অসাধু ব্যক্তিরা অন্যায় লাভের আশায় বিজ্ঞ আদালতের রায় উপেক্ষা করে তাদের খেয়াল খুশি মতো সর্ব পর্যায়ে অবকাঠামো নির্মাণ, কবর খনন, আবাদী জমির সেচ কাজের জন্য ড্রেন সহ গৃহস্থলির খনন জনিত কাজ বন্ধ করে দেয়। এর ফলে আমরা এলাকাবাসী অশান্ত ও অসস্তি পরিবেশে বসবাস করছি। তিনি আরো বলেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অসাধু কর্মকর্তা, কর্মচারির যোগ সাজশ করে প্রকৃত মালিকের অজান্তে অপকৌশলের মাধ্যমে তিন ফসলি জমি নাম মাত্র মূল্যে পানির দামে অধি গ্রহন করে তা অতি মূল্যে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে লিজ দিয়ে প্রকৃত ভূমি মালিককে সর্ব শান্ত করে আসছে। তারা অন্যায় ভাবে লাভের উদ্দেশ্যে ভূমি অধিগ্রহনের পায়তারা করে আসছে। ইতিপূর্বে তারা পরিকল্পিত ভাবে বিজ্ঞ আদালতে নিরিহ গড়মহাস্থান বাসির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করে করেছে। বর্তমানে প্রতœতাত্তি¡ক বিভাগের কিছু অসাধু ব্যক্তি গড় মহাস্থান বাসিন্দাদের কোন খনন কাজ সহ জমি সেচের ড্রেন ইত্যাদি কাজ করতে দিচ্ছে না, তারা নিরিহ মানুষদেরকে মিথ্যা মামলায় জরানোর ভয়-ভীতিও দেখিয়ে আসছে। কিছু অসাধু কর্মকর্তা ও কর্মচারীর কারণে আমরা গ্রামবাসী দিশেহারা হয়ে পড়েছি। আমরা দেশের মহামূল্যবান প্রতœতাত্তি¡ক সম্পদ কেহ নষ্ট করুক বা কাহারো দ্বারা নষ্ট হোক তা আমাদের কখনো কাম্য নয়। দূর্লভ এই সম্পদের যথাযথ রক্ষণা-বেক্ষণ আমরা চাই। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট আকুল আবেদন করছি বিষয়টি সু-দৃষ্টি দিয়ে আমাদের কে যেন অহেতুক মিথ্যা মামলায় না জড়ানো এবং বাপ দাদার ভিটা মাটি হতে উচ্ছেদ না করে এবং আমাদের কে স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা ও বসবাসের সুযোগ সহ চাষাবাদের জন্য ব্যবস্থা করতে। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রায়নগর ইউপি চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম শফি, যুবলীগ নেতা তাজুল ইসলাম, ইউপি সদস্য আলাহ উদ্দিন, আসালত জামান, মোশারফ হোসেন, মুক্তা রহমান, খোরশেদ হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, ফজলুল হক সহ গ্রামের সর্বস্তরের ৫ সহ¯্রাধীক নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com