শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৪১ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।

বানারীপাড়ায় শিক্ষক অবরুদ্ধ ঘটনার নিষ্পত্তি

 

মোঃ সুজন মোল্লা,বানারীফাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি॥  বানারীপাড়ায় এইচএসসি পরীক্ষায় চাখার সরকারী ফজলুল হক কলেজ কেন্দ্রের ভ্যানু স্থাণীয় ফজলুল হক ইনষ্টিটিউশনে ৫ পরীক্ষার্থীর খাতা টেনে নেওয়ার ঘটনায় শনিবার পরীক্ষা শেষে শিক্ষকদের সঙ্গে পরীক্ষার্থীদের ঘটা অনাকাঙ্খিত ঘটনার নিষ্পতি হয়েছে বলে জানাগেছে। রবিবার সকালে চাখার সরকারী ফজলুল হক কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব প্রফেসর এস এম সফিউর রহমান এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও চাখার ইউপি চেয়ারম্যান খিজির সরদার অবরুদ্ধ শিক্ষক, ৬ পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের নিয়ে  বৈঠক করে ভবিষ্যতে এ ধরণের অনাকাঙ্খিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে না মর্মে অঙ্গীকার করিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের লিখিত মুচলেকা রেখে বিষয়টির নিষ্পত্তির করেন। গতকাল ৮ এপ্রিল সরেজমিনে চাখার গিয়ে জানাযায় বাইশারী বিশ^বিদ্যালয় কলেজ কেন্দ্র এইচএসসি পরীক্ষায় এবছর নকল প্রবণতা ও ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত হওয়ায়,কৌশলে ওই কলেজের কতিপয় শিক্ষক প্রশাসনিক নজর অন্যদিকে ফেরাতে চাখার কেন্দ্রে দায়িত্বরত অবস্থায়,পরীক্ষা চলাকালীণ ঠুনকো অজুহাতে শিক্ষার্থীদের খাতা টেনে নিত। যার ফলে শনিবার ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষা শেষে খাতা টেনে নিয়ে যাওয়া ৫ শিক্ষার্থী ও তাদের বন্ধুরা পরীক্ষা শেষে শিক্ষকদের দেখে ফুঁসে ওঠেন। তবে পরীক্ষা শুরু হওয়ার মাত্র ২০/২৫ মিনিটের মধ্যে রিমন হাওলাদার নামের যে পরীক্ষার্থীর খাতা নিয়ে গিয়েছিলেন ডিউটিরত শিক্ষক, সেই ছাত্র নিজেই স্বীকার করেছেন তার প্রশ্নপত্রের নিচে পরীক্ষায় আসা উত্তর মালার কপিছিল। এদিকে বাইশারী বিশ^বিদ্যালয় কলেজ’র বিপক্ষে ওঠা অভিযোগ আদৌ সত্য নয় বলে ওই কলেজ সূত্রে জানাগেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com