মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:২৫ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

উলুবেড়িয়ায় নির্বাচন এ বার ভিভিপ্যাটে

নিজস্ব সংবাদদাতা : শুরু হয়ে গেল কাউন্টডাউন। শুক্রবারই উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের জন্য প্রার্থী ঘোষণা করে দিল তৃণমূল ও বাম।

যাদবপুরের পরে উলুবেড়িয়া হতে চলেছে রাজ্যে দ্বিতীয় লোকসভা কেন্দ্র যেখানে সব বুথে ভিভিপ্যাট যন্ত্রে (ভোটার ভেরিফায়েড পেপার অডিট ট্রেল) ভোট নেওয়া হবে।

সাংসদ সুলতান আহমেদের মৃত্যুতে উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রটি খালি হয়। আগামী ২৯ জানুয়ারি এখানে উপনির্বাচন হবে। এই লোকসভা কেন্দ্রে মোট ১৮০১টি বুথ আছে। নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, এই লোকসভার সব বুথেই ভিভিপ্যাটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। এর আগে ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুরে ভিভিপ্যাটের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হয়েছিল। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিটি জেলায় একটি করে বিধানসভা কেন্দ্রে ভিভিপ্যাটের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হয়েছিল। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত কাঁথি এবং সবং বিধানসভা উপনির্বাচনেও ভিভিপ্যাট-এর মাধ্যমে ভোট নেওয়া হয়।

ভিভিপ্যাট যন্ত্রের বিশেষত্ব হল,   ভোটার যে প্রার্থীকে ভোট দিচ্ছেন তাঁর নাম এবং প্রতীক চিহ্ন পর্দায় ফুটে উঠবে। ভোট দেওয়ার পরেও যদি ভোটারের মনে কোনও সংশয় থাকে তাহলে তিনি প্রিসাইডিং অফিসারের  থেকে নির্দিষ্ট ফর্ম নিয়ে পূরণ করে তিনি দ্বিতীয়বার ভোট দেওয়ার জন্য আবেদন জানাতে হবে। এই ভোটটি তাঁকে প্রিসাইডিং অফিসার, ভোটকর্মী এবং বিভিন্ন রাজনতিক দলের বুথ এজেন্টদের সামনে দিতে হবে। দ্বিতীয়বার যদি দেখা যায় যে প্রতীকের পাশের বোতাম তিনি টিপেছিলেন, ভিভিপ্যাটের পর্দাতেও সেই প্রতীকই ফুটে উঠেছে তাহলে সেই ভোটারকে শাস্তির মুখে পড়তে হবে। এছাড়া বোতাম টিপলেই ভিভিপ্যাট যন্ত্র থেকে একটি কাগজ বের হবে। সেখানে ভোটদাতা যাঁকে ভোট দিয়েছেন, তাঁর নাম ও প্রতীক থাকবে। তবে বিশেষ প্রয়োজন না হলে ওই কাগজ ভোটারকে দেওয়া হবে না। সেটি ভিভিপ্যাটের ভিতরেই থাকবে।

শুক্রবার বাগনান ২ বিডিও অফিসের অডিটোরিয়ামে ভিভিপ্যাট যন্ত্রটি সংবাদমাধ্যমকে দেখানো হয়। সেখানে হাজির ছিলেন হাওড়ার জেলাশাসক চৈতালী চক্রবর্তী, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের যুগ্মসচিব অনামিকা মজুমদার-সহ জেলা প্রশাসনের কর্তারা।

জেলাশাসক বলেন, ১০ জানুয়ারি নাগাদ ভোট কর্মীদের প্রশিক্ষণের জন্য বেশ কিছু ভিভিপ্যাট যন্ত্র আসবে। তারপর থেকেই ভোটকর্মীদের প্রশিক্ষণ শুরু হবে।  জেলাশাসক জানান, রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদেরও ভিভিপ্যাটের ব্যবহার দেখিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়াও হ্যান্ডবিল, কিয়স্ক প্রভৃতির মাধ্যমে ভিভিপ্যাটের ব্যবহার বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হবে।

উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৯টি ব্লক আছে। প্রতিটি বিডিও অফিসে বিশেষ কিয়স্ক খুলে ভিভিপ্যাট নিয়ে প্রচার চালানো হবে বলেও জেলাশাসক জানান। নির্বাচন কমিশনের যুগ্মসচিব অনামিকাদেবী জানান, এই লোকসভাকেন্দ্রে এতদিন ইভিএম যন্ত্রে ভোট হত। এবার নতুন যন্ত্রের মাধ্যমে ভোট হবে। তিনি বলেন, ‘‘সবং-এ ভিভিপ্যাট-এর মাধ্যমে ভোট দিয়ে ভোটাররা তাঁদের সন্তুষ্টির কথা নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিদের জানিয়েছেন।’’

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com