বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪৯ অপরাহ্ন

দেশে সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা আসতে পারে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: হঠাৎ করেই বিশ্ববাজারে সোনার দামে বড় উত্থান হয়েছে। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে (সোমবার) বিশ্ববাজারে এক লাফে প্রতি আউন্স সোনার দাম ৪০ ডলারের ওপরে বেড়েছে। এতে এক আউন্স সোনার দাম ১ হাজার ৯০০ ডলার ছাড়িয়েছে।

বিশ্বাজারে সোনার এমন দাম বাড়ায় দেশের বাজারেও দামি এই ধাতুটির দাম বাড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। আজ বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে দাম বাড়ার ঘোষণা আসতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, দেশের বাজারে সর্বশেষ সোনার দাম সমন্বয় করার পর ইতোমধ্যে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম একশ ডলারের মতো বেড়েছে। বিশ্ববাজারের পাশাপাশি স্থানীয় বাজারেও পাকা সোনার দাম বেড়েছে। এতে স্বাভাবিকভাবেই দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়াতে হবে।

সূত্র আরও জানায়, আজ মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি সোনার দাম পর্যালোচনা করতে বৈঠকে বসবে। ওই বৈঠক থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে প্রতি গ্রাম সোনার দাম কী পরিমাণ বাড়ানো হবে। কমিটি সোনার দাম বাড়ার সিদ্ধান্ত নিলে, আজ ঘোষণা দিয়ে আগামীকাল থেকে দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানো হবে।

গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস (শুক্রবার) এক লাফে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম বাড়ে ৩৬ ডলার। এর পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদ  বলেন, আমরা সোনার দাম বাড়ানো বা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকি স্থানীয় বাজারের ওপর ভিত্তি করে। সোনার দাম পর্যালোচনা করতে মঙ্গলবার বৈঠকে বসবো। যদি বিশ্ববাজারে সোনার দাম বাড়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকে এবং স্থানীয় বাজারে পাকা সোনার দাম বাড়ে তাহলে আমরাও দাম বাড়াবো।

এদিকে চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসও বিশ্ববাজারে সোনার দামে বড় উত্থান হয়েছে। একদিনে প্রতি আউন্স সোনার দাম ৪৬ ডলার বেড়ে যায়। এতে প্রতি আউন্স সোনার দাম উঠে ১ হাজার ৯১৩ ডলারে। তবে আজ সোনার দাম কিছুটা কমতে দেখা যাচ্ছে। অবশ্য এরপরও প্রতি আউন্স সোনার দাম ১ হাজার ৯০০ ডলারের ওপরে রয়েছে।

সর্বশেষ দেশের বাজারে সোনার দাম যখন সমন্বয় করা হয় সে সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৮১০ ডলার। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তা বেড়ে প্রতি আউন্স সোনার দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯০৪ ডলারে। অর্থাৎ দেশের বাজারে দাম সমন্বয়ের পর বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ৯৬ ডলার বেড়েছে।

দেশের বাজারে সর্বশেষ ২৬ ফেব্রুয়ারি সব থেকে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৯১ হাজার ৯৬ টাকা করা হয়েছে। এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ৫০ টাকা কমিয়ে ৮৭ হাজার ১৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ৮৭৫ টাকা কমিয়ে ৭৪ হাজার ৫৯১ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে ৬৯৮ টাকা কমিয়ে ৬২ হাজার ১৬৯ টাকা করা হয়েছে। বর্তমানে দেশের বাজারে এ দামেই সোনা বিক্রি হচ্ছে।

সম্প্রতি বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার আগে এক মাস ধরে টানা দরপতন হয় সোনার। এতে এক মাসের মধ্যে প্রতি আউন্স সোনার দাম ১৩৫ ডলার কমে যায়। বিশ্ববাজারে টানা দরপতনের মধ্যে দেশের বাজারে ফেব্রুয়ারিতে দুদফায় সোনার দাম কমানো হয়। অবশ্য তার আগে টানা ছয় দফা দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়ানো হয়। এতে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দেশের বাজারে ইতিহাসের সর্বোচ্চ দামে পৌঁছে সোনা।

চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি দাম বাড়ার মাধ্যমে ভালো মানের এক ভরি সোনার দাম হয় ৯৩ হাজার ৪২৯ টাকা। এর আগে কখনো দেশের বাজারে সোনার ভরি ৯৩ হাজার টাকা স্পর্শ করেনি। রেকর্ড দাম হওয়ার পর ফেব্রুয়ারিতে দুদফা সোনার দাম কিছুটা কমানো হয়।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com
Web Site Designed, Developed & Hosted By ALL IT BD 01722461335