সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
বগুড়ার শেরপুরে বিশালপুর ইউনিয়ন বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কাহালু সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা থানায় তদবিরে গিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী গ্রেফতার মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত: পররাষ্ট্র সচিব আয়রন ব্রিজ তো নয় যেন মরণ ফাঁদ উখিয়ায় বিভিন্ন অপরাধে জড়িত রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৬ শিবগঞ্জে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শাওনের নির্বাচনী উঠান বৈঠক শিবগঞ্জে কৃষকের কলা বাগানের ছড়িতে মেডিসিন ষ্প্রে করে ২শতাধিক কলা নষ্ট করার অভিযোগ শিবগঞ্জ থানা পুলিশের আয়োজনে দূর্গাপূজা উপলক্ষে মত বিনিময় সভা ধামইরহাটে জাহানপুর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি লুইছার রহমান

মহাদেবপুরে ধর্ষণ মামলার আসামি প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও রহস্যজনক কারণে পুলিশ নিরব

মোঃ আইনুল হোসেন, মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুরে স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়েরের ২ সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করে বিপাকে পড়েছেন ওই কিশোরীর পরিবার, আসামীরা প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলেও ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ।
মামলা সূত্রে জানা গেছে গত ১৯ জুলাই সকালে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিয়ে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে ৯ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ করে উপজেলার এনায়েতপুর ইউনিয়নের কালুশহর মোল্লাপাড়া গ্রামের প্রদীপ রবিদাস ও তার তিন সহযোগী। পরে এক আত্মীয়ের বাড়িতে আটকে রেখে রাতভর তাকে ধর্ষণ করে। ২০ জুলাই স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় সাবেক ইউপি সদস্য ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে তার বাড়িতে বুঝিয়ে দেয়। ২১ আগস্ট কিশোরীর বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে প্রদীপ রবিদাসসহ চার জনকে আসামি করে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। ২২ আগস্ট মূল আসামি প্রদীপ রবিদাসকে গ্রেপ্তার করা হলেও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বাদীকে মামলা তুলে নিতে দিচ্ছে প্রাণনাশের হুমকি।
পুলিশ বলছে ঘটনা যাচাই-বাছাই করে আসামি ধরছেন তারা। যদিও আইনজীবী বলছেন মামলা হবার পর পুলিশের প্রথম দায়িত্ব আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা।
নওগাঁ জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ সরদার সালাউদ্দীন মিন্টু জানান, কোনও ধর্ষণ মামলার আসামিকে গ্রেপ্তারের ২৪ ঘন্টার মধ্যে আদালতে সোপর্দ করতে হবে। এরপর আসামিরা আদালত থেকে জামিন নিতে পারবে। আর আসামিদের বিরুদ্ধে করা অভিযোগের সত্যতা মিললে চার্জশিট দেবে।
বাকি আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি অসহায় পরিবারটির।#ে

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com