রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২০ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
Gtbnews24.com এর হেড অফিস স্থানান্তর করা হয়েছে। বতর্মান ঠিকানাঃ মাঝিড়া,শাজাহানপুর,বগুড়া।
সংবাদ শিরোনামঃ
বগুড়ার শেরপুরে বিশালপুর ইউনিয়ন বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কাহালু সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা থানায় তদবিরে গিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী গ্রেফতার মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত: পররাষ্ট্র সচিব আয়রন ব্রিজ তো নয় যেন মরণ ফাঁদ উখিয়ায় বিভিন্ন অপরাধে জড়িত রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৬ শিবগঞ্জে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শাওনের নির্বাচনী উঠান বৈঠক শিবগঞ্জে কৃষকের কলা বাগানের ছড়িতে মেডিসিন ষ্প্রে করে ২শতাধিক কলা নষ্ট করার অভিযোগ শিবগঞ্জ থানা পুলিশের আয়োজনে দূর্গাপূজা উপলক্ষে মত বিনিময় সভা ধামইরহাটে জাহানপুর ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি লুইছার রহমান

রংপুরে হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে উদ্ধার চেয়ে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বরাবর মায়ের আবেদন।

মোঃ মমিনুর রহমান, রংপুর ব্যুরোঃ রংপুরে মেয়ে ফাতেমা আক্তারকে ফেরত চেয়ে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি ও রংপুর পুলিশ সুপার বরাবর আকুল আবেদন করেছেন হারিয়ে যাওয়া ফাতেমার মা । শনিবার (২৮ আগষ্ট) সকালে ফাতেমা আক্তারের মা মোছাঃ রমিছা বেগম রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি ও পুলিশ সুপার বরাবর মেয়েকে ফেরত চেয়ে আবেদন করেন। উক্ত  আবেদন, পরিবার, ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রংপুর জেলার কাউনিয়া থানার হলদীবাড়ি গ্রামের মোছা: রমিছা বেগম, স্বামী মো: শহিদুল ইসলাম, এর মেয়ে মোছা: ফাতেমা আক্তার (১৬) কাউনিয়া দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেনীর একজন ছাত্রী,
 গত বছর  ১০/০৩/২০২০ইং তারিখে সকাল আনুমানিক ৬.৩০ ঘটিকার সময় বাড়ি হইতে প্রাইভেট পড়ার কথা বলিয়া রওয়ানা করিয়া প্রাইভেট না পড়িয়া কোথায় যেন চলে যায়। একই দিনে আনুমানিক সন্ধ্যা ৭.০০ ঘটিকার সময় অজ্ঞাত নামা মোবাইল হইতে বাবা শহিদুল ইসলামের মোবাইলে ফোন করিয়া হ্যালো হ্যালো বলে ফোন কেটে দেয়। পরে মেয়েকে সকল স্থানে খোজাখুজি করে তাকে না পেয়ে  গত ১৩/০৩/২০২০ ইং তারিখ সকাল আনুমানিক ১০.৩০ ঘটিকার সময় ফাতেমা আক্তার তার বন্ধু লিটন মিয়া (১৯) এর মোবাইল হতে কল করিয়া বলে আমি ষ্টেশনে আছি,  আমার মোবাইল ফোনটি হারাইয়া গিয়েছে তারপর থেকে উক্ত মোবাইল নম্বর  দুটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে এবং সে সময় হতে আজ পর্যন্ত ফাতেমা আক্তারকে খুজে পাওয়া যায়নি। ফাতেমা আক্তারের শরীরের বর্ণনা উচ্চতা ৫ফিট, গায়ের রং কালো, মাঝারি মুখমন্ডল গোলাকার, তার চুল কালো। পরবর্তীতে জানতে পারে যে, লিটন মিয়ার সহিত  মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।
এ ব্যাপারে ফাতেমার মা রমিছা বলেন, আমি বাদি হয়ে গত বছর ১৫-০৩-২০২০ইং তারিখে কাউনিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছি যাহার নং- ১০২৩/ ২০ তাং ১৫/০৩/২০২০ইং করার প্রায় ১৫ মাস পরেও আমার মেয়ের কোন সন্ধান পাইনি। পরবর্তীতে আমার স্বামী শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মেয়ের কথিত প্রেমিক ১. মো: লিটন মিয়া (১৯), পিতা- মো: হাশেম আলী, ২. মো: হাশেম আলী (৪৫) পিতা- মৃত আরফান আলী, ৩. মোছা: মল্লিকা বেগম (৪০) স্বামী মো: হাশেম আলী, ৪. আলিমুদ্দিন (২৪) পিতা- মো: হাশেম আলী সর্ব গ্রাম- পাঞ্জরভাঙ্গা, থানা- কাউনিয়া, জেলা- রংপুর।  আসামী করে এজাহার দিলে অজ্ঞাত কারণে এজাহারটি গ্রহন করেনি থানা পুলিশ ।
থানা থেকে বলেছিল আপনাদের মামলা দিয়ে কি হবে আপনাদের মেয়েকে ফেরত পেলেই তো হল।
কান্নারত অবস্থায় তিনি আরো বলেন, আমি মা হয়ে  আমার বুকের ধন আমার মেয়ে মোছা: ফাতেমা আক্তার কে আমার বুকে ফিরিয়ে দিতে প্রধানমন্ত্রী, ডিআইজি, পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ঠদের  জোর দাবি জানাচ্ছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com