রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০২ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রেডিয়াম চৌধুরীর ব্যাপক প্রচার-প্রচারনা

মনিরুল ইসলাম,সাপাহার(নওগাঁ) প্রতিনিধি: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বেশ কিছুদিন বাঁকী থাকলেও ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন পত্নীতলা উপজেলাধীন ১১ নং শিহাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক রেজাউল করিম চৌধুরী রেডিয়াম।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার পরানপুর গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক রেজাউল করিম চৌধুরী রেডিয়াম দীর্ঘ ২০ বছর যাবৎ শিহাড়া ইউনিয়ন সহ উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে সমাজসেবা করে আসছেন।

রেডিয়াম চৌধুরীর পিতা প্রয়াত ফজলুল হক চৌধুরী ১৯৭৯ সালের মে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। এবং তার বড় চাচাও উক্ত ইউনিয়নে দীর্ঘদিন যাবৎ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। যার ফলস্বরূপ রেডিয়াম চৌধুরীকে বংশ পরম্পরায় শিহাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পরিবারের সন্তান বলা যেতে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তারা জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেমন দেশকে ডিজিটালাইজড পদ্ধতিতে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন ঠিক তেমনি ভাবে যদি রেডিয়াম চৌধুরী শিহাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হন তাহলে ওই ইউনিয়ন একটি ডিজিটাল ইউনিয়ন হতে পারে বলে ধারণা করছেন তারা।এ ব্যাপারে রেডিয়াম চৌধুরী একান্ত সাক্ষাতকারে এ প্রতিবেদককে জানান, শিহাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে তিনি তার প্রচার প্রচারনা অব্যহত রেখেছেন। এছাড়াও তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে শিহাড়া ইউনিয়নকে মাদক ,বাল্যবিবাহ মুক্ত একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবেন।ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রেডিয়াম চৌধুরীর ব্যাপক প্রচার-প্রচারনা

মনিরুল ইসলাম,সাপাহার(নওগাঁ) প্রতিনিধি: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বেশ কিছুদিন বাঁকী থাকলেও ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন পত্নীতলা উপজেলাধীন ১১ নং শিহাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক রেজাউল করিম চৌধুরী রেডিয়াম।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার পরানপুর গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক রেজাউল করিম চৌধুরী রেডিয়াম দীর্ঘ ২০ বছর যাবৎ শিহাড়া ইউনিয়ন সহ উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে সমাজসেবা করে আসছেন। রেডিয়াম চৌধুরীর পিতা প্রয়াত ফজলুল হক চৌধুরী ১৯৭৯ সালের মে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। এবং তার বড় চাচাও উক্ত ইউনিয়নে দীর্ঘদিন যাবৎ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। যার ফলস্বরূপ রেডিয়াম চৌধুরীকে বংশ পরম্পরায় শিহাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পরিবারের সন্তান বলা যেতে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তারা জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেমন দেশকে ডিজিটালাইজড পদ্ধতিতে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন ঠিক তেমনি ভাবে যদি রেডিয়াম চৌধুরী শিহাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হন তাহলে ওই ইউনিয়ন একটি ডিজিটাল ইউনিয়ন হতে পারে বলে ধারণা করছেন তারা।এ ব্যাপারে রেডিয়াম চৌধুরী একান্ত সাক্ষাতকারে এ প্রতিবেদককে জানান, শিহাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে তিনি তার প্রচার প্রচারনা অব্যহত রেখেছেন। এছাড়াও তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে শিহাড়া ইউনিয়নকে মাদক ,বাল্যবিবাহ মুক্ত একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com