রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:১৩ অপরাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

করোনার কারণে হাট বাজার বন্ধ থাকায় ৩৫ লক্ষ টাকার গরু নিয়ে বিপাকে খামারী

সাজু মিয়া: বগুড়ার সদর উপজেলার নামুজা ইউনিয়নের বামনপাড়া গ্রামের খামারী হারুন ৩৫ লক্ষ টকার গরু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন।
আসন্ন ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ১৮টি গরু নিয়ে খামার করেছেন হারুন। দেশ ব্যাপী করোনা ভাইরাসের কারণে হাট বাজার গুলোতে সরকারি বেঁধে দেওয়া নিয়ম-নীতি ও আদেশ মেনে চলা যেমন কঠিন তেমনি এবারে মানুষের রোজগারের সীমাবদ্ধতা নিয়ে দেখা দিয়ে শঙ্কা।

এবারের কোরবানীর পশুর বাজারে গরু-ছাগলের দাম নিম্ন মুখী হওয়ায় গরু বিক্রি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন খামারী হারুন। মূলত তিনি একজন সফল পল্ট্র্রি ব্যবসায়ী। ছোট ভাই হাবুলের গরুর খামার করা দেখে নিজেও উদ্যোগ নিয়ে শখের বশে কয়েক বছর ধরে গরুর খামার প্রতিষ্ঠা করে গরু মোটাতাজা করণের খামার দেন। এবারে ঈদকে সামনে রেখে দেশী, সন্ধি এবং অষ্ট্রোলিয়ান জাতের ১৮টি গরু কিনেছিলেন মোটাতাজা করণের জন্য।

এর মধ্যে তিনটি গরু বিক্রি করেন খামার পরিচালনা করতে ব্যর্থ হয়ে, কারণ প্রতিদিন প্রায় ৪হাজার ২শত টাকার গো খাদ্য সামগ্রী কিনতে হয় গরুগুলোকে খাওয়ানোর জন্য। এবার ঈদকে সামনে রেখে প্রায় ৫২০ কেজি ওজনের ৩টি গরু ও ৪৫০ কেজি ওজনের ১২টি গরু বিক্রয়ের জন্য প্রতিপালন করেছেন। ৩টি গরু ৯ লক্ষ টাকা এবং বাকি ১২টি গরু ২৬ লক্ষ টাকা মূল্য নির্ধারণ করে রেখেছেন বলে জানান তিনি। কিন্তু এবারের ঈদে গরুর হাটে বাজার নিম্ন মুখী হওয়ায় গরু নিয়ে তিনি বিপাকে পড়েছেন। যদি কেউ দেশী, সন্ধি এবং অষ্ট্রোলিয়ান জাতের গরু ক্রয় করতে চান, তাহলে তার মোবাইল ফোন নম্বর -০১৭৩৬-৭০৪৫০৭ যোগাযোগ করে গরুগুলি দেখে ক্রয় করতে পারবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com