বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ
দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় জিটিবি নিউজ এর সাংবাদিক  নিয়োগসহ পরিচয় পত্র নবায়ণ চলছে।

নওগাঁর মহাদেবপুরে রাস্তা পাকাকরণ না হওয়ায় চরম দুর্ভোগে এলাকাবাসী

আইনুল ইসলাম: মাত্র ৪ কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণ না হওয়ায় নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার ১০নং ভীমপুর ইউপির লক্ষীপুর ও ভান্ডাপুরের মধ্যে দিয়ে যাওয়া রাস্তাটির প্রায় ৫টি গ্রামের মানুষকে বছরের পর বছর ধরে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

একমাত্র গ্রামীণ এই রাস্তার একাধিক স্থানে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে রাস্তাটির কিছু অংশে ইট দিয়ে হেয়ারিং করে দেওয়া হলেও সেগুলো উঠে গিয়ে বর্তমানে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এ রাস্তায় ভ্যান, ভটভটি ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন চলাচল করে না। বর্ষায় রাস্তার গর্তে পানি জমে গেলে এসব যানবাহনও চলাচল করতে পারে না। দ্রুত রাস্তাাটি পাকা করণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

মহাদেবপুর উপজেলার ১০নং ভীমপুর ইউপির লক্ষীপুর ও ভান্ডাপুরের এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ চলাচল করে। রাস্তাটি দিয়ে গ্রামের শত শত শিক্ষার্থী স্কুলে যাতয়াত করে, কিন্ত বর্ষা মৌসুমে রাস্তায় কাঁদা পানি থাকার কারণে স্কুলে যেতেও পারে না শিক্ষার্থীরা। রাস্তাটি দিয়ে লক্ষীপুর, ভান্ডাপুর, রসুলপুর, তেজপাইন ও খোর্দ্দনারায়ণপুর পালপাড়া গ্রামের মানুষদের যেতে হয় হাটচকগৌরী বাজারে এবং প্রতিনিয়তই চলাচল করতে হয় এই রাস্তা দিয়ে।

তাদের চলাচলের জন্য আর কোনো রাস্তা নেই। দিনে যানবাহন চলাচল করলেও রাতে এই রাস্তায় কোনো যানবাহন চলাচল করে না। এতে মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। অনেক সময় যানবাহন গর্তে পড়ে দুর্ঘটনাও ঘটে। দীর্ঘদিন ধরে এই সব বড় বড় গর্তসহ রাস্তার কোনো সংস্কারের কাজ না করায় দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে।

লক্ষীপুর ও ভান্ডাপুর গ্রামের রাজকুমার, ফারুক হোসেন বাবু, সহ অনেকেই বলেন, ‘আমরা চরম অবহেলিত এলাকায় বসবাস করি, যার কারণে দীর্ঘ সময় পার হলেও গ্রামীণ এই অবহেলিত মরণফাঁদ রাস্তায় এখনো পর্যন্ত আধুনিকতার কোনো ছোঁয়া লাগেনি। স্থানীয় প্রশাসনকে বিষয়টি অনেকবার জানানোর পরও রাস্তাটি এখনো বেহাল দশায় পড়ে আছে।’

ভীমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শ্রী রাম প্রসাদভদ্র বলেন,‘এই রাস্তা সংস্কারের জন্য স্থানীয় সংসদ মহোদয় কে জানানো হয়েছে তিনি বলেছেন অচিরেই এই রাস্তাটি সংস্কারের বিষয়টি দেখা হবে।’

উপজেলা প্রকৌশলী সুমন মাহমুদ বলেন, এই রাস্তাটির প্রকল্প পক্রিয়াধীন রয়েছে, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব স্বাভাবিক হলে রাস্তার কাজটি শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © gtbnews24.com