বুয়েট ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পাঁচ শর্ত

জিটিবি নিউজ টুয়েন্টিফোর : আন্দোলনের পঞ্চম দিনে এসে বলতে চাই, আমাদের ১০ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। তবে ডিসি স্যারের শেষ মুহূর্তের অনুরোধ দেশজুড়ে যেসব ছোট ভাইয়েরা ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের জন্য স্বল্প সময়ে বাস্তবায়ন করা যায় এমন কয়েকটি পয়েন্ট আলাদা করেছি এই দাবিগুলো বাস্তবায়ন করলে আমরা ধরে নেব বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার মতো পরিবেশ সৃষ্টি হবে।

১. আবরার ফাহাদ হত্যায় জড়িত সবাইকে সাময়িক বহিষ্কার করতে হবে, চার্জশিটে যাদের নাম আসবে তাদেরকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করতে হবে এই এই মর্মে বুয়েট প্রশাসন নোটিশ জারি করবে।

২. আবরার হত্যা মামলার সব খরচ বুয়েট প্রশাসন বহন করবে ও আবরারের পরিবারকে পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দিতে প্রশাসন বাধ্য থাকবে। এটা নোটিশ লেখা থাকতে হবে।

৩. অবৈধভাবে হলে থাকা উৎখাত করতে হবে এবং রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠনগুলোর অফিস রুম সিলগালা করতে হবে। বুয়েটে সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করার পরও যদি কেউ ছাত্র রাজনীতিতে জড়িত হয় বা ছাত্র নির্যাতনের জড়িত হয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তার কি ব্যবস্থা নেবেন তা বিস্তারিত নোটিশ জারী করতে হবে। তা বিশ্ববিদ্যালয় অর্ডিন্যান্স যুক্ত করা হবে এটা নোটিশে উল্লেখ থাকতে হবে। এ ধরনের কার্যক্রম মনিটর করার জন্য একটি কমিটি গঠন করতে হবে।

৪. বুয়েটে পূর্বে ঘটে যাওয়া ছাত্র নির্যাতন ও হয়রানি ও রাগের ঘটনা প্রকাশের জন্য বিআইআইএস একটি কমন প্লাটফর্ম তৈরি করতে হবে। সেটা মনিটর করা ও শাস্তি বিধানের জন্য জন্য একটি কমিটি গঠন করতে হবে। সেটা নোটিশে উল্লেখ থাকতে হবে।

৫. হলের প্রতিটি সবগুলো ফ্লোরে সবদিকে সিসি টিভি স্থাপন করতে হবে। এবং সিসি টিভি ফুটেজ ২৪ ঘণ্টা মনিটর করতে হবে।

আমরা চাইনা ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ১৯ ব্যাচের যেসকল অনুজরা আসবেন তারা একটি অসুস্থ অ্যাক্যাডেমিক কালচারের অংশ হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *