কলেজছাত্রীকে অপহরণ করলেন ছাত্রলীগ নেতা!

কলেজছাত্রী অপহরণ মামলায় বগুড়ার ধুনট উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন রিপনকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রিপন ধুনট পৌর এলাকার পশ্চিম ভরণশাহী গ্রামের গোলাম রহমানের ছেলে। রোববার বিকেলে শেরপুর শহরের ধুনট মোড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ধুনট পৌর এলাকার পশ্চিমভরনশাহী গ্রামের ব্যবসায়ী মাসুদ করিম লিটুর মেয়ে বগুড়া সরকারি মজিবর রহমান মহিলা কলেজের ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী। তাকে একই গ্রামের মৃত গোলাম রহমানের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন রিপন দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ অবস্থায় ২০১৮ সালের ৪ জুন রাত ৮টায় ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন রিপনসহ ৭-৮ জন ওই ছাত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় অপহৃত ছাত্রীর বাবা মাসুদ করিম লিটু বাদী হয়ে ওই রাতেই ইকবাল হোসেন রিপনকে প্রধান আসামি করে এজাহারভুক্ত চারজন এবং অজ্ঞাত আরও ৭-৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। অপহরণের পর ধুনট উপজেলার চিকাশী গ্রামের সেতুর পাশ থেকে অপহৃত কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তৎকালীন ধুনট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) খোকন কুমার কুন্ড মামলাটি তদন্ত শেষে ইকবাল হোসেন রিপনসহ চার আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। মামলার প্রধান আসামি ইকবাল হোসেন রিপন জামিন না নিয়ে ১৮ মার্চ ধুনট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রকাশ্যে শোডাউন ও গণসংযোগ করেন।

এ ব্যাপারে ওই সময় জাগো নিউজে সংবাদ প্রকাশ হয়। অভিযুক্ত রিপন জানিয়েছিলেন পরোয়ানার ব্যাপারে তিনি অবগত রয়েছেন। জামিন নেয়ার সময় পাচ্ছেন না। সময় হলে জামিন নিয়ে নেবেন।

শেরপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম বলেন, কলেজছাত্রী অপহরণ মামলায় ধুনট থানার গ্রেফতার পরোয়ানামূলে ইকবাল হোসেন রিপনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ধুনট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *