কৃষকের হাত কেটে নিয়ে গেল তারা

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোমিন আলী নামে এক কৃষকের হাত কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

আহত মোমিনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার সকালে গুরুদাসপুর উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের হরদমা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত মোমিন আলী ওই এলাকার মো. শুকুর সরদারের ছেলে।

আহত মোমিনের সঙ্গে থাকা আবু হানিফ বলেন, রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আমি ও মোমিনসহ কয়েকজন মিলে ভুট্টার জমিতে ভুট্টা উঠানোর জন্য রওনা হই। পথিমধ্যে হরদমা গ্রামের ন্যাংরার মোড় নামক স্থানে প্রতিপক্ষ একই এলাকার রমিজুলের ছেলে রাসেল, শরিফের ছেলে সোনা উল্লা, ময়েনের ছেলে টগর, সোরাপের ছেলে জমিনসহ বেশ কয়েকজন আমাদের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে মোমিনের বাঁ পায়ে ও মাথায় কোপানোসহ ডান হাত কেটে রেখে দেয় তারা। পরে স্থানীয় লোকজন আহত মোমিনকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠান।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানা পুলিশের ওসি মো. মোজাহারুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি শুনেছি। ওই এলাকার উত্তপ্ত পরিবেশ শান্ত রাখার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD