যৌন সমস্যা অনেকটাই কমিয়ে ফেলতে পারেন আপনি

জিটিবি নিউজঃ একবিংশ শতকে পৃথিবী নানা দিক থেকে সাবালক হলেও এখনও শরীর, যৌনতা এসব নিয়ে সরাসরি আলোচনা করার মতো পরিসর এখনও আমরা সর্বত্র পাই না। এমনকি খুব নিকটজনের সঙ্গেও এ সব নিয়ে মুখ খুলতে চান না অনেকেই। এই সংক্রান্ত সমস্যাও এড়িয়ে যেতেই চান একাংশ, চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করাতেও যেন হাজারও সংকোচ!

তবে বিশেষজ্ঞরা এবার অন্য কথা বলছেন। তাঁদের মতে, । সেটাও খুব সহজেই। এমন উপাদান আছে প্রকৃতিতেই, যা কিনা আসলে ভায়াগ্রার মতোই শক্তিশালী।

টেক্সাস এ অ্যান্ড এম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় উঠে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্রুট অ্যান্ড ভেজিটেবল ইমপ্রুভমেন্ট সেন্টারের ডিরেক্টর গবেষক ভিনু পটেলের নেতৃত্বে এই গবেষণা চালান একদল বিশেষজ্ঞ। তাঁদের দাবি, যৌন অক্ষমতা দূর করতে তরমুজের ক্ষমতাও ভায়াগ্রার সমান!

যৌনক্ষমতায় যাঁরা দুর্বল বা অক্ষম— তাঁদের জন্য তরমুজই সেরা ‘প্রাকৃতিক ঔষধ’। তরমুজে থাকা সিট্রোলিন নামের অ্যামাইনো অ্যাসিড-ই এই ক্ষমতার জন্য দায়ী। এর উপস্থিতি যে তরমুজে এত বেশি পরিমাণে রয়েছে এর আগে বিশেষজ্ঞরা তা বুঝে উঠতে পারেননি। শুধু সিট্রোলিনই নয়, তরমুজে থাকা আরজিনিনকেও এই গুণের অন্যতম ‘কারণ’ বলছেন, ভায়াগ্রার মতোই রক্তনালিকার কাজ স্বাভাবিক ও সহজ রেখে যৌন ক্ষমতাকে কিছুটা বাড়িয়ে দেয় এই আরজিনিন।

গবেষকদের দাবি, নিয়মিত খাদ্যতালিকায় তরমুজ রাখলে যৌনক্ষমতা তো বাড়েই, তা ছাড়াও তরমুজের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট মানসিক চাপ কমায়। তাঁদের মতে, শারীরিক সম্পর্কের অন্তরায়এই মানসিক চাপও। এমনকি, প্রস্টেট ক্যানসার, ফুসফুসের ক্যানসার এ সব রুখে দিতেও ওস্তাদ তরমুজ। এ ছাড়া তরমুজে আছে লিকোপেন। লিকোপেন হাড়ের স্বাস্থ্যকে রক্ষা করে।

যৌন ক্ষমতা বাড়ানো ছাড়াও তরমুজের ক্যারোটিনয়েডে চোখের নানা সমস্যা দূর হয়। তরমুজে প্রচুর জল থাকে বলে তা সহজেই পেট ভরায় কিন্তু শরীরে ক্যালোরি ঢোকে না একটুও। ফলে ওবেসিটি কমাতেও এই ফল বিশেষ কার্যকর। আর ওবেসিটিজনিত অসুবিধাও যৌন সম্পর্কে নানা বাধার সৃষ্টি করে। তাই নানা দিক থেকে তরমুজেই যৌন সমস্যার সমাধান দেখতে পাচ্ছেন গবেষকরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD